অস্ট্রিয়ায় হাসপাতাল,নার্সিং হোম,স্বাস্থ্য রিসোর্ট ও বৃদ্ধাশ্রমে দর্শনার্থীদের মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে!

 অন লাইন ডেস্ক থেকে, কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৭০ জন। যার মধ্যে রাজধানী ভিয়েনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৩ জন। করোনার এই ব্যাপক সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নীতি নির্ধারকদের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। তাই প্রতি বেলায় বেলায় করোনার নতুন নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করতে দেখা যাচ্ছে।                                    

গতকাল বিকেলে সার্লজবুর্গ শহরে সম্প্রতি পশ্চিম বলকান রাষ্ট্র সমূহ থেকে অবকাশ যাপন শেষ করে ফিরে আসা ৮ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এর পর পরই অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানান,শুক্রবার ২৪ জুলাই থেকে করোনা কবলিত দেশ থেকে কেহ অস্ট্রিয়ায় প্রবেশ করলে তাকে করোনার নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে এবং ১৪ দিনের জন্য নিজ বাড়িতে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।                                                             

 

আজ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস নোটে জানানো হয়েছে যে, এখন থেকে অস্ট্রিয়ায় পুনরায় হাসপাতাল,নার্সিং হোম, স্বাস্থ্য রিসোর্ট এবং বৃদ্ধাশ্রমে দর্শনার্থীদের জন্য মাস্ক পড়ার নিয়ম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।                          

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০৯৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭১১ জন। করোনা থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ১৭,৯৪৩ জন। বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৪৪৫ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৫ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১০২ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।

 7,078 total views,  2 views today