২০২১ সালের গ্রীষ্মের পূর্বে অস্ট্রিয়ায় স্বাভাবিকতা ফিরে আসবে না – সেবাস্তিয়ান কুর্জ

 অন লাইন ডেস্ক থেকে, কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ান সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এপিএ এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে উপরোক্ত মন্তব্য করেছেন। তিনি আশঙ্কা ব্যক্ত করে বলেন আগামী শরৎ ও শীতকালে অস্ট্রিয়ায় করোনার সংক্রমণ অব্যাহত থাকবে এবং শীতের পর এর প্রভাব কমতে থাকবে। তিনি জনগণকে আশ্বস্ত করে বলেন আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই তবে সকলের নিজের থেকে সতর্ক ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান।

তিনি এপিএকে বলেন মহামারী সম্ভবত অনেক বিশেষজ্ঞের প্রাথমিকভাবে অনুমানের চেয়ে কম দীর্ঘস্থায়ী হবে। করোনার দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবে শরৎ এবং শীতকাল ২০২০ “চ্যালেঞ্জিং” হবে – বিশেষ করে উত্তর গোলার্ধের দেশগুলিতে, শারদীয় এবং শীতের মাসগুলি সেপ্টেম্বর ২০২০ থেকে শুরু হবে। এই সময়টায় “বার্ষিক ফ্লু তরঙ্গের সাথে সামঞ্জস্যতা এবং বাড়ির অভ্যন্তরে তাপমাত্রা-সংক্রান্ত সামাজিক ক্রিয়াকলাপ” দ্বারা কমপক্ষে সাময়িকভাবে COVID-19 সংক্রমণের বিদ্যমান ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে তুলবে। যার ফলে সামনের মাসগুলিতে করোনার COVID-19 সংক্রমণের আরও বিস্তারলাভের সমূহ সম্ভাবনার রয়েছে। এর ফলে অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা করোনার সংক্রমণ বিস্তাররোধে সাময়িকভাবে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারি।

সরকার প্রধান আরও বলেন,ভাইরাসটি ঝুঁকিপূর্ণ গ্রুপের মানুষের জন্য বিপজ্জনক অর্থাৎ যে সমস্ত মানুষ পূর্ব থেকেই জটিল রোগে ভুগছেন। এরই মধ্যে, এটি বৈজ্ঞানিকভাবেও প্রমাণিত হয়েছে যে ভাইরাসটি বহুবার রূপান্তরিত হয়েছে এবং পূর্বে সফলভাবে নিরাময় হওয়া রোগীরা আবার সংক্রামিত হতে পারে। মহামারী বিজ্ঞানের দিক থেকে, এই রূপান্তরগুলি মধ্য মেয়াদে ভাইরাসটি আরও সংক্রামক হয়ে উঠতে পারে, তবে একই সাথে আরও হালকাও হতে পারে তবে এই ব্যপারে বিশ্বব্যাপী ব্যপক গবেষণা চলছে। বিশ্বব্যাপী প্রায় ১৬৫ টি পরীক্ষাগারে কোভিড -১৯ এর ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা চলছে। বিশ্ব এই শীতের পূর্বে করোনার ভ্যাকসিন পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩২৮ জন তবে কেহ মৃত্যুবরণ করেন নি। আক্রান্তদের মধ্যে রাজধানী ভিয়েনাতেই ১৩০ জন। ভিয়েনায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৫০৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২১০ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৫,৫৯৮ জন। বর্তমানে এই রাজ্যের সক্রিয় রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১,৬৯৬ জনে।

সমগ্র অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৬,৩৬১ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৩৩ জন। করোনার থেকে সুস্থ হয়েছেন ২২,৩১৭ জন। বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩,৩১১ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন ২৪ জন এবং হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৪৫ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 7,363 total views,  1 views today