লালমোহনে ১২ ই নভেম্বরকে উপকূল দিবস হিসাবে ঘোষনার দাবীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

 জাহিদুল ইসলাম দুলাল, লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: উপকূলের জন্য হোক একটি দিন, জোরালো হোক উপকূল সুরক্ষার দাবী। ১৯৭০ সালের ১২ ই নভেম্বর ভোলা সাইক্লোনের ৫০ বর্ষপূর্তিতে , ঘূর্ণিঝড়ে প্রায়ত উপকূলবাসীর স্মরন এবং ১২ ই নভেম্বরকে ”উপকূল দিবস” হিসাবে ঘোষনার দাবীতে ভোলার লালমোহনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।                                                    

১২ নভেম্বর ২০২০ ইং বৃহস্পতিবার আসরবাদ লালমোহন প্রেসক্লাবের আয়োজনে ১ মিনিট নিরবতা পালন, বাংলাদেশের দক্ষিনাঞ্চলে ১৯৭০ সালে ১২ নভেম্বর সাইক্লোনে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত  কামনায় দোয়া মোনাজাত ও ১২ ই নভেম্বরকে ”উপকূল দিবস” হিসাবে ঘোষনার দাবীতে ভোলার লালমোহনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।                                     

লালমোহন প্রেসক্লাবের সভাপতি আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে এবং প্রেসক্লাব যুগ্ম-সম্পাদক মাহাবুব আলমের সঞ্চলনায় ১২ নভেম্বর ২০২০ইং আসরবাদ এ উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন লালমোহন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ। অনান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি ও প্রেসক্লাব সদস্য কবি রিপন শান, লালমোহন সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন আলম মাকসুদ, সাংবাদিক ফেরামের সাধারন সম্পাদক ও প্রেসক্লাব সদস্য নুরুল আমীন প্রমূখ ।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন আজ থেকে ৫০ বছর পূর্বে বাংলাদেশের দক্ষিনাঞ্চলে ১৯৭০ সালে ১২ নভেম্বর সাইক্লোনে প্রায় ১০ লক্ষ লোক মারা যায়। এ পর্যন্ত সাইক্লোনে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যায় ঐ দিন। এ  দিনটিকে সকলে স্মরন রাখার জন্য ১২ ই নভেম্বরকে উপকূল দিবস হিসাবে ঘোষনা দেয়া উচিত। এজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়।  

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ফকরুল আলম হাওলাদার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল হাসান রিমন, পৌরসভা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আনম শাহজামাল দুলাল সহ লালমোহন উপজেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।  

 10,051 total views,  1 views today