হবিগঞ্জে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে যুবকের ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

 হবিগঞ্জ প্রতিনিধি, মোতাব্বির হোসেন কাজল: হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের কঠোর হুশিয়ারী। রবিবার (৫ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩ টায় শানখলা ইউনিয়নে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে এক বালু খেকোকে তৌফিক মিয়া (২৮) নামে এক যুবককে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এ দণ্ডদেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিলটন চন্দ্র পাল। দণ্ডপ্রাপ্ত যুবক উপজেলার শানখলা ইউনিয়নের পঞ্চাশ এলাকার মৃত আ: শহীদ লিলি মিয়ার ছেলে।

এ তথ্য নিশ্চিত করে সহকারী কমিশনার ভূমি মিল্টন চন্দ্র পাল জানান, উপজেলার ৫ নং শানখলা ইউনিয়নের অন্তর্গত পঞ্চাশ এলাকার জাঙ্গাল নামক স্থানে ইজারা বহির্ভূত ফুলছড়া থেকে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল তৌফিক মিয়া। এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে উল্লেখিত স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে বালু খেকু তৌফিক মিয়াকে এক বছরের দণ্ডাদেশ দেয়া হয়। পরে বিকেলে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি তৌফিক মিয়াকে চুনারুঘাট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিনিয়তই উপজেলা প্রশাসনের অভিযান চালানো হচ্ছে, কোন অবৈধ বালু উত্তোলনকারী সুযোগ পাবেনা। এধরনের অভিযান অব্যাহতআছে। ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগিতা করেন চুনারুঘাট থানার এএসআই হান্নান এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ।

চুনারুঘাট থানার ওসি মোঃ আলী আশরাফ জানান, আসামি তৌফিক মিয়াকে ভ্রাম্যমান আদালত শেষে রাত সাড়ে ৮ টায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে কতিপয় দুষ্কৃতকারী অতীব গুরুত্বপূর্ণ ছড়া ও বাড়ি ঘর সংলগ্ন এলাকায় এবং সরকারের বালুমহাল হিসেবে ঘোষিত নয় এমন এলাকা থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে। এছাড়া কোনো কোনো অনুমোদিত ইজারাদারও বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১০ অনুসরণ না করে বালু উত্তোলন করছেন। ফলে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতিসহ সংশ্লিষ্ট এলাকায় নদীভাঙন সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা হুমকির সম্মুখীন হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিদ্ধার্থ ভৌমিক বলেন, কোন অবস্থাতেই অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করতে দেয়া হবেনা আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

 14,710 total views,  1 views today