প্রয়াত রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বৃটিশ হাইকমিশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর সোমবার প্রয়াত বৃটেনের রাণী এলিজাবেথের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  ভিয়েনা থেকে কবির আহমেদঃ ঢাকায় অবস্থিত ব্রিটিশ হাইকমিশনে প্রয়াত রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ব্রিটিশ হাইকমিশনে রাখা খোলা শোক বইতে স্বাক্ষর করেন তিনি।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি হাসান জাহিদ তুষার হাইকমিশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, পুষ্পস্তবক অর্পণের পর প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত রাণীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। সমবেদনা জানানোর পর হাসিনা রাণীর সঙ্গে তার মনোরম স্মৃতি স্মরণ করেন।
বাংলাদেশের জাতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী এর আগে,বৃটিশ মিশনে পৌঁছালে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানান। হাইকমিশনার রাণীকে সম্মান দেখানোর জন্য মিশন পরিদর্শন করায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এই প্রথম বাংলাদেশের কোনো প্রধানমন্ত্রী ঢাকায় ব্রিটিশ হাইকমিশনে গেলেন।

এদিকে অন্য এক খবরে বলা হয়েছে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে এনেছে। বাংলাদেশের পক্ষে এবারও একটি বড় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর লন্ডনের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বেন। ১৯ সেপ্টেম্বর যোগ দেবেন রাণী এলিজাবেথের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে। এই অনুষ্ঠান শেষে তিনি যাবেন যুক্তরাষ্ট্রে।

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেবেন। ২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে। এবারও তিনি বাংলাতে বক্তব্য রাখবেন বলে জানা গেছে।

এটি হবে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১৯তম ভাষণ। প্রথম মেয়াদে পাঁচবারসহ তিনি এখন পর্যন্ত ১৮টি অধিবেশনে ভাষণ দিয়েছেন। এত বেশিবার জাতিসংঘ অধিবেশেনে যোগদান ও ভাষণের একটি নজির স্থাপন করতে চলেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। গণতান্ত্রিক একটি দেশের সরকার প্রধান হিসেবে এত বেশি ভাষণ দেওয়ার ঘটনাকে দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ও বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম এ আবদুল মোমেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রেে সংবাদ সংস্থা ভয়েস অফ আমেরিকার সাথে এক সাক্ষাৎকারে জানান, সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। লন্ডন শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগদান শেষ করেই প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্ক যাবেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ব্যাপক সংবর্ধনা জানানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কে অবস্থানকালে ২৪ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন। নিউইয়র্কের কুইন্সে এস্টোরিয়া ম্যানরের বলরুমে কয়েক হাজার প্রবাসী এই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। তবে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি এই অনুষ্ঠানে থাকবেন না। তিনি ভার্চুয়ালে ভাষণ দেবেন।

এ ছাড়াও বেশ কয়েকজন বিশ্ব নেতার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ও স্থানীয় মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার কর্মসূচি রয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সব কর্মসূচি চূড়ান্ত করে এনেছে।

তথ্যসূত্র: জাতীয় সংবাদ মাধ্যম ও ভয়েস অফ আমেরিকা

 18,784 total views,  1 views today