করোনাসচেতনতায় শিল্পী সুজন মাহাবুবের পারফর্মেন্স আর্ট “সর্বার্থে আত্মত্যাগ”

ভোলা থেকে ব্যুরো চীফ রিপন শানঃ করোনা ভাইরাসের কবলে দিশেহারা পুরো বিশ্ব ।  বাংলাদেশেও হানা দিয়েছে কবিড নাইনটিন। মানুষের এই সংকটের সময়ে শিল্পীরা পিছিয়ে নেই। শিল্পীরা তাদের শিল্পকর্ম দিয়ে সচেতন করার চেষ্টা করছেন মানুষকে। 

সেই দায়বদ্ধতা থেকে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে গাইড লেকচারার হিসেবে কর্মরত ভোলার গুণীসন্তান পারফার্মেন্স আর্ট শিল্পী সুজন মাহাবুব তার ফেসবুকে প্রকাশ করেছেন ভিজুয়াল মিডিয়ায় নির্মিত ১০সেকেন্ড সময়কালের পারফারমেন্স আর্ট ‘সর্বার্থে আত্মত্যাগ’। 

বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকা প্রতীকের আচ্ছাদনে আবৃত হয়ে নিঃশ্বাস প্রশ্বাসের ফিল্টার করার মধ্য দিয়ে পারফারমেন্স আর্ট ‘সর্বার্থে আত্মত্যাগ’। নদী বিধৌত বাংলার কোলে দাঁড়িয়ে মুক্ত আকাশ পানে চেয়ে আলোর রশ্মি দেহ-মনে মেখে জাতীয় পতাকার আচ্ছাদনে ভাইরাস রুপ শত্রুকে পরাজিত করার দীপ্ত প্রত্যয় চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ছে ভাটিয়ালী বাঁশির সুরে। আশংকার অবসানে, আলোক আভার উন্মোচনে, শিল্পী সুজন মাহাবুবের করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে শিল্পের লড়াই ‘সর্বার্থে আত্মত্যাগ’।

পারফরম্যান্স আর্টের শিল্পকর্মে শিল্পীর সমস্ত দেহটাই যেখানে ক্যানভাস, এবং সম্মুখ উপস্থিত মানুষই যেহেতু দর্শক ফলে ফলে শিল্পকর্মটি উপস্থাপিত হবার কথা ছিলো জনসম্মুখে।  কিন্তু করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যেহেতু অন্যতম প্রধান শর্ত তাই, সুজন মাহাবুব ট্রাইপডে ক্যামেরা বসিয়ে, ভোলা জেলার মনপুরা দ্বীপে নয়নাভিরাম দৃশ্যপটে এককভাবে পারফর্মেন্স আর্টটি উপস্থাপন করেন। অতঃপর দর্শকদের দেখার স্বার্থে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে  শিল্পী তার নিজস্ব ফেইসবুক আইডিতে শেয়ার করেছে। সংকট থেকে সম্ভাবনার পথে শিল্পী সুজন মাহাবুব ও তার পারফর্মেন্স আর্ট  ‘সর্বার্থে আত্মত্যাগ’। শিল্পের শক্তিতে দূর হোক করোনা দুর্যোগ ।

 

 3,935 total views,  1 views today