জনপ্রতিনিধি হয়েছি দু:সময়ে মানুষের পাশে থাকার জন্য- এমপি শাওন


জাহিদুল ইসলাম দুলাল, লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: লালমোহন পৌরসভার আয়োজনে করোনা ভাইরাস (COVID-19) প্রতিরোধে জীবানু নাশক ঔষধ ছিটানো ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের শুভ উদ্ধোধন করেন ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনের এমপি আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন।                    

১৩ এপ্রিল সোমবার সকালে লালমোহন চৌরাস্তার মৌড়ে জীবানু নাশক ঔষধ ছিটানো ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের শুভ উদ্ধোধন করেন তিনি। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় এমপি শাওন বলেন আমি যতদিন বেঁচে আছি এই মানুষের দু:সময়ে আমি আছি এবং থাকবো। দু:সময়ে আমি আপনাদেরকে থেকে দুরে থাকবো না। এই মহামারি করোনা ভাইরাসে আমি আপনাদের সাথে আছি। মরন ব্যাধী করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে আমাদের সরকারের দেয়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া নির্দশনা মেনে চলতে হবে।                              

সন্ধ্যা ৬টার পর কোন লোক রাস্তায়, বাজারে থাকতে পারবেন না। শুধু মাত্র ঔষধের দোকান ব্যাতিত কোন দোকান খোলা থাকবে না। মুদি দোকান বেলা ১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এর পর যদি কোন দোকান খোলা থাকে তাহলে সে দোকান ও মানুষের বিরুদ্ধে আইনআনুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাজারের দোকান খোলা থাকলেই মানুষ বাজার মুখীহয়। দোকান খোলা থাকবে না মানুষ বাজারমূখী হবে না। প্রতিটা মসজিদে সরকারের নীতিমালা মেনে চলতে হবে। নামাজের সময় আপনার ঘরের সকলকে নিয়ে নিজের বাসায় জামাতে নামাজ পড়ুন।              

 

তিনি আরও বলেন খাদ্যের মধ্যে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না। জনপ্রতিনিধিরা কোন মুখ চেয়ে চেয়ে তালিকা করতে পারবে না। জনপ্রতিনিধিদের কে সতর্ক করে বলেন কে আপনাকে ভোট দিয়েছে কে দেয়নি তাহা দেখবেন না। কোন মুখ চেয়ে তালিকা করবেন না। যারা প্রকৃত পাওয়ার যোগ্য গরীব মানুষ তাদেরকে আমাদের সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যে বরাদ্বকৃত সহযোগিতা এটা তাদেরকে পৌঁছে দিতে হবে। এটা আমাদের ঈমানী দায়িত্ব, এটা আমাদের বলেন্টিয়ার সার্ভিস শেখ হাসিনার প্রতি আমাদের কমিমটমেন্ট। মাথায় রাখতে হবে এই কমিটমেন্ট দিয়েই আমরা জনপ্রতিনিধি হয়েছি। আমরা জনগনেরর কাছে কমিটেড আমরা শেখ হানসনার কাছে কমিটেড। আমরা জনপ্রতিনিধি হয়েছি দু:সময়ে মানুষের পাশে থাকার জন্য। সতর্ক থাকবো আমরা।

সেভ রেখে সরকারী কর্মকর্তা জনপ্রতিনিধিরা ঝুঁকি নিয়ে জনগনের জন্য কাজ করতে হবে। জনগনও সরকারের সকল আইন মেনে চলতে হবে। আইন সবার জন্য সমান ভাবে প্রয়োগ করা হবে। সে যেই হোক আইন অমান্য করবে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জনপ্রতিনিধিরা ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ি, শ্রমজীবি শ্রমিক,নিম্ন,ও মধ্যবিত্ত পরিবার যারা হোম কোয়ারেন্ট আছে তাদের বাড়িতে খাবার পোছে দেওয়া হবে। এ সময় অনান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালমোহন উপজেলা চেয়ারম্যান গিয়াসউদ্দিন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আবুল হাসান রিমন, ওসি মীর খায়রুল কবির, পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র জাহিদুল ইসলাম নবিন, পৌর কাউন্সিলরসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্ধ।

 4,186 total views,  1 views today