ত্রাণ যেন সঠিক মানুষের কাছে পৌঁছায়, রমজানে ঘরে বসে ইবাদতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা থেকে মহিবুর রহমান আদনানঃ ভোটার দেখে ত্রাণের তালিকা করা চলবে না এবং ত্রাণ যেন সঠিক মানুষের কাছে পৌঁছায় পাশাপাশি ত্রান নিয়ে কোন অনিয়ম হলে ছাড় দেওয়া হবেনা বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।                                                               আজ বৃহস্পতিবার ১৬ এপ্রিল সকাল ১০টার দিকে ঢাকা বিভাগের নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর ও গোপালগঞ্জ জেলার সঙ্গে ভিডিও কনফারে্ন্সে কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কারা দলের ভোটার এই দেখে তালিকা করা যাবে না। আমরা চাই, যারা প্রকৃত জনগণ তারা তালিকায় আসুক। আওয়ামী লীগ শুধু দলীয় রাজনীতি করে না, আওয়ামী লীগ জনগণের জন্য রাজনীতি করে। এই সুস্পষ্ট বার্তাটি আমরা দিতে চাই।’                                                   

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক মন্দা ও দুর্ভিক্ষ মোকাবেলায় প্রায় ১লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা  দেওয়া হয়েছে এবং সেই সাথে আরও ৫০ লাখ মানুষকে রেশন কার্ড দেওয়া হবে। এছাড়া করোনার কারণের রমজানে ঘরে বসে ইবাদতের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। রমজানে মুসলমানরা এশার নামাজের পর ২০ রাকাত তারাবির নামাজ মসজিদে জামাতের সঙ্গে পড়ে থাকেন।                                 

আগামী ২৫ বা ২৬ এপ্রিল চাঁদ দেখাসাপেক্ষে বাংলাদেশে রমজান মাস শুরু হবে।এবার একটা ভিন্ন পরিস্থিতিতে রমজান আসন্ন। করোনাভাইরাসের কারণে দেশের মসজিদগুলোতে জামাতে মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত করা হয়েছে। এমতাবস্থায় রমজানে তারাবি মসজিদে পড়া যাবে কিনা তা নিয়ে মুসল্লিরা উদ্বিগ্ন।                                                         

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখেছেন, সৌদি আরবে নামায, জামাত বন্ধ করে দিয়েছে। এমনকি তারাবি নামাজ সেখানে হবে না, সবাই ঘরে পড়বে। খুব সীমিত আকারে সেখানে তারা করছে। তারা নিষেধ করে দিয়েছে।’ ‘ঠিক এভাবে মসজিদ, মন্দির, গির্জা, এমনকি ভ্যাটিকান সিটি থেকে শুরু করে সব জায়গায় তারা সুরক্ষার ব্যবস্থা নিয়েছে। নিজেদের সুরক্ষিত করা, অন্যকে সুরক্ষিত করা’-যোগ করেন সরকার প্রধান। তিনি বলেন, কাজেই তাদের কাছ থেকে আমাদেরও শিক্ষার বিষয় আছে। যে কারণে আমরা মসজিদে না গিয়ে নিজের ঘরে নামাজ পড়তে বলছি। কারণ- আল্লাহর এবাদত তো আপনি যে কোনো জায়গায় বসে করতে পারেন। এটাতো আল্লাহর কাছে আপনি সরাসরি করবেন। কাজেই বরং আপনার এবাদত করার একটা ভালো সুযোগ আছে।

 4,052 total views,  1 views today