বরিশালে ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসন

ভোলা থেকে ব্যুরো চীফ, রিপন শানঃ ঢাকা-বরিশাল পথে চলাচলকারী এমভি সুরভী-৮ লঞ্চকে ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট হিসেবে উদ্বোধন করা হয়। ছবি: প্রথম আলোবরিশালে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিতে এবং আইসোলেশনে (আলাদা) রাখার জন্য উদ্বোধন করা হলো ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট।                                           

বরিশাল নদীবন্দরে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা- বরিশাল পথে চলাচলকারী বিলাসবহুল লঞ্চ এমভি সুরভী-৮-কে ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট হিসেবে প্রস্তুত করে তা উদ্বোধন করা হয়। এটা দেশের দ্বিতীয় ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট। এর আগে পটুয়াখালীতে ১৪ এপ্রিল প্রথম ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট উদ্বোধন করা হয়।                    

নৌবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, লঞ্চটিতে ৪২টি সিঙ্গেল, ৩৪টি ডাবল, ৪টি ফ্যামিলি, ২টি সেমি ভিআইপি ও ৪টি ভিআইপি কেবিন আছে। এটি বরিশাল সিভিল সার্জনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। আজ সন্ধ্যায় ভাসমান আইসোলেশন ইউনিটটি উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন বরিশালের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) প্রশান্ত কুমার দাস, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) বরিশাল অঞ্চলের যুগ্ম পরিচালক আজমল হুদা সরকার, ডেপুটি কালেক্টর নেজারত (এনডিসি) এস এম রবিন শীস প্রমুখ। বিআইডব্লিউটিএর বরিশাল অঞ্চলের যুগ্ম পরিচালক আজমল হুদা সরকার বলেন,  ‘জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় আমরা এই অত্যাধুনিক লঞ্চটিকে ভাসমান আইসোলেশন ইউনিট হিসেবে ঘোষণা করেছি। এ জন্য লঞ্চটির সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আজ সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন হয়েছে। এখন আমরা লঞ্চটিকে সিভিল সার্জনের কাছে হস্তান্তর করব।’

 4,826 total views,  1 views today