করোনা ভাইরাস কেড়ে নিলো সাংবাদিক হুমায়ুন কবির খোকনের প্রাণ

 ভোলা থেকে ব্যুরো চীফ রিপন শানঃ অস্ট্রিয়া-বাংলাদেশ প্রেসক্লাব ও লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের শোক ও সমবেদনা প্রকাশ ।

 দৈনিক সময়ের আলোর উচ্চপদস্থ সাংবাদিক এবং ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সদস্য হুমায়ুন কবীর খোকন (৫০) পাড়ি দিয়েছেন না ফেরার দেশে (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন) ।

২৯ এপ্রিল ২০২০ মঙ্গলবার রাতে উত্তরা রিজেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় । 

তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন। শ্বাসকষ্ট নিয়ে মঙ্গলবার রাতে হাসপাতালে ভর্তির পর রাত ১০টা ৩ মিনিটে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। চিকিৎসকরা ধারণা করছেন তিনি কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ছিলেন।                                                                                                                      সময়ের আলোর সিনিয়র রিপোর্টার এবং ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিব রহমান জানান, ২০ এপ্রিল থেকে বাসায় থেকেই অফিসের কাজ করেছেন হুমায়ুন কবীর খোকন। তার দাঁতে ব্যথা ও অ্যাজমার সমস্যা ছিল। গত শুক্রবার থেকে তার জ্বর, কাশিসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয়। গতকাল মঙ্গলবার ভোর থেকে শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন। বিষয়টি জানার পর বিএফইউজের মহাসচিবসহ সিনিয়র সাংবাদিকদের সহযোগিতায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির অ্যাম্বুলেন্সে তাকে উত্তরার রিজেন্ট হাসাপালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। রাত ১০টা ২০ মিনিটে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে। রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ জানান, সন্ধ্যার পর হুমায়ুন কবীর খোকনকে হাসপাতালে আনা হয়। পরিবার জানিয়েছে, এর আগে দুই হাসপাতাল ঘুরে এসেছেন তিনি। তার প্রচন্ড- শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। যে অ্যাম্বুলেন্সে আনা হয়, সেখানে অক্সিজেনের কোনো ব্যবস্থা ছিল না। আমাদের হাসপাতালে আনার পর কিছু করার ছিল না। অবস্থা খুবই গুরুতর ছিল। ৯টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। করোনার উপসর্গ থাকায় মৃত্যুর কিছু সময় আগে পরীক্ষার জন্য খোকনের নাকের সোয়াপ সংগ্রহ করা হয়েছে।

হুমায়ুন কবীর খোকনের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগরে। তিনি ঢাকাস্থ কুমিল্লা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ছিলেন। এর আগে তিনি দৈনিক আমাদের সময়, মানবজমিন ও আমাদের অর্থনীতি পত্রিকায় কাজ করেছেন। দৈনিক আমাদের সময়ে তিনি উপসম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। 

তার আকস্মিক মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে ইউনিক গ্রুপ এবং নতুন ভিশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহা. নূর আলী ও দৈনিক আমাদের সময়ের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোহাম্মদ গোলাম সারওয়ার, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএম এনামুল হক, সময়ের আলোর প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ ও ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কমলেশ রায় । আরো গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছে- অস্ট্রিয়া- বাংলাদেশ প্রেসক্লাব  সভাপতি, লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা ও অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা থেকে প্রকাশিত অনলাইন দৈনিক ইউরো সমাচার সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক ইউরো সমাচার এর ভোলা ব্যুরো চিফ কবি রিপন শান, লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফয়েজ ফ্যাশন, লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম দুলাল, যুগ্ম সম্পাদক শঙ্কর মজুমদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজান হাওলাদার, দপ্তর সম্পাদক জাকির হোসেন জুয়েল, প্রচার সম্পাদক জসিম মাতাব্বর প্রমুখ ।

দৈনিক মানবকন্ঠের অনলাইন সম্পাদক সজীব খান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে লিখেছেন- ” খোকন ভাই আপনি একটি গান লিখেছিলেন ‘এমন একটা আকাশ চাই, যে আকাশে তুমি আমি ছাড়া আর কেউ নাই, যে আকাশে বৃষ্টি আছে, আছে ভালোবাসা, যে আকাশে নেইতো কোনও বৈশাখী ঝড়ের হাওয়া।’ এই আকাশ আপনার এত পছন্দ ছিলো জানতাম না। বৃষ্টিভেজা বৈশাখী রাতেই এভাবে আমাদের ফাঁকি দিয়ে আপনি সত্যি সত্যি আপনার প্রিয় আকাশে হারিয়ে গেলেন।”

 

 4,807 total views,  1 views today