মাঝরাতের ফোনকলে ১২২ বছরের বৃদ্ধের বাড়িতে এমপি শাওন

    ভোলা থেকে,ব্যুরো চীফ রিপন শানঃ ১২ এপ্রিল২০২০ মঙ্গলবার রাত ১১টা ‌। নেতাকর্মীদের নিয়ে জরুরী একটা মিটিংয়ে বসেছিলেন ভোলা ৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ।  হঠাৎ মুঠোফোনে এক নতুন কণ্ঠস্বর । বলল- আমরা খুব গরীব মানুষ স্যার। আমাদের বুঝি দেখার কেউ নেই! শুনি আপনি রাতে ঘুমান না। বিভিন্ন বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে সবার ভালমন্দ খবর নেন। যদি দয়া করে আমাদের বাড়ীতে আসতেন !                                                                                                                                                       কথা শেষ হলে উপস্থিত আলোচনা সভা সমাপ্ত করে গন্তব্যস্থলে ছুটলেন লালমোহন তজুমদ্দিনের গরীব দুঃখী আপামর মেহনতি মানুষের নেতা নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। এলাকার মানুষ যাকে ভালোবেসে নাম দিয়েছে ‘দ্বীপবন্ধু’ ।

তিনি ভাবলেন, তাকে দয়া করে যেতে হবে কেন! তার দায়িত্ব-ই এটা। একদা সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য একটি জনপদকে শান্তির নীড়ে রুপান্তর করে সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর লক্ষেই জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে এ অঞ্চলে পাঠিয়েছেন। বন্ধুর এ পথটি পাড়ি দিতে তাকে অনেক শ্রম দিতে হয়েছে। সে অনেক ইতিহাস । সবি জানে ভোলা তিনের মানুষ । 

মঙ্গলবার রাত ১১টা ৩০মিনিট । 

নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী, রমজানের ইফতার সামগ্রী এবং অনুগত স্বেচ্ছাসেবী টিম নিয়ে জনদরদী নেতা এমপি শাওন দ্রুতই বুড়ো মানুষটির জীর্ণশীর্ণ বাড়িতে পৌঁছালেন। খুবই খারাপ লাগলো তার। কিছু মানুষের জীবন কত দুর্বিসহ ওখানে না গেলে তিনি অনুমান করতে পারতেন না। ঘরের সবার সাথে কথা বললেন। সকলকে খাবারের প্যাকেট ও নগদ অর্থ তুলে দিলেন। তারা মহাখুশি। ১২২ বছরের বুড়ো মুরুব্বী সেকান্দর মিয়ার হাতে তুলে দিলেন নগদ ৫ হাজার টাকা ‌। আবেগের আতিশয্যে তার চোখ ছলছল করে উঠলো ‌। বৃদ্ধ পরমানন্দে এমপি শাওন কে জড়িয়ে ধরে বললেন-  সাহায্য দূরের কথা, কখনো কোন এমপিকে চোখে দেখিনি। আজ আপনি আমার মনের সাধ মিটিয়ে দিলেন।

করোনাকালের মানবতাবাদী যোদ্ধা এমপি শাওন  পরম মমতায় ঐ বাড়ীর সবাইকে আপন করে নিলেন। এখানেই তার প্রশান্তি। 

১২২ বছরের বৃদ্ধের চোখের পানিতে নিজের অশ্রু সংবরণ করতে পারেননি সম্প্রতি পিতাহারানো এমপি শাওন। শুধু কষ্টের নয়, এটা মানুষকে ভালবাসার অশ্রু। চলমান করোনা দুর্যোগে এলাকার কোনো মানুষকে যেন অভুক্ত না থাকতে হয়- এই অঙ্গীকার নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বির্ণিমানসহ নিজ নির্বাচনী এলাকা লালমোহন-তজুমদ্দিনের প্রতিটি মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানোর লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন তিনি ।

 

 5,703 total views,  1 views today