ঝালকাঠিতে বেটারী চালিত অটোরিক্সা চুরি চক্রের ২জন গ্রেফতার, একটি কার জব্দ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠিঃ ঝালকাঠি থানা পুলিশের অভিযানে জহিরুল ইসলাম(২৪) ও জিয়া জোমাদ্দার(২৬) নামের বেটারী চালিত অটোরিক্সা চুরি চক্রের ২জনকে গ্রেফতার করেছে। এবং চুরির কাজে ব্যাবহৃত একটি মূল্যবান ১৪-১৫ লক্ষটাকা মূল্যের একটি কার জব্দ করা হয়েছে। এদের মধ্যে জহিরুল ইসলাম বরগুনা জেলার তালতলি এলাকার চরপাতা গ্রামের জাকির হোসেন এবং জিয়া জোমাদ্দার একই জেলার তালতলি উপজেলার বেতিপাড়া গ্রামের মৃত জব্বার জোমাদ্দারের পুত্র।                                                     

বুধবার সকাল ১১টায় সাধনার মোড় থেকে ঝালকাঠি শহরের ষ্টেশন রোড এলাকার মঞ্জুরুল ইসলামের মালিকানাধীন বেটারী চালিত অটোরিক্সা কৌশল করে চুরি করে নেয়া কালিন এদের কে ধাওয়া করা হয় এবং ঝালকাঠি বরিশাল সড়কের শ্রীরামপুর এলাকা থেকে চোরাই কাজে ব্যবহৃত গাড়িসহ প্রতারক চক্রের এই দুজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেন। ইতোপূর্বে একই মালিকের অপর একটি বেটারী চালিত অটোরিক্সা গত ০৯ জুন ২০২০ তারিখ একই কৌশলে চুরি করে নেয়। জেলা অটো রিক্সা চালকদের সংগঠন সূত্রে দাবি করা হয়েছে এই চক্র অনেক যাবৎ ঝালকাঠি শহর থেকেই প্রায় ২৫টি বেটারী চালিত অটোরিক্সা চুরি করেন।                                               

চোর চক্রটি প্রথমে অটো রিক্সায় কিছু মালামাল তুলে বিভিন্ন এলাকায় ভাড়ার কথা বলে নিয়ে যায়। সেখানে অপেক্ষমান কারটিতে চক্রের অন্য সদস্যরা অপেক্ষা করে এবং নির্দিষ্ট স্থানে অটো পৌছার পর চক্রের অন্য সদস্যরা ডিবি াব আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে অটো চালককে তাদের কারে তুলে নেয় এবং অজ্ঞান করে দূরে কোথাও রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যায়। এদের শিকার হওয়া ঝালকাঠির অটো চালক মোঃ জাহিদ হোসেন জানান তাকে গত ২৭ মে ২০২০ তারিখ নবগ্রাম সড়ক থেকে ভাড়া করা হয় এবং ঝালকাঠির ব্র্যাক মোড় পূর্ব অংশে এসে অপেক্ষমান করা থেকে দুজন এসে তাকে ডিবি পরিচয় দিয়ে হ্যান্ডক্যাপ লাগিয়ে কারে তুলে নেয় এবং অজ্ঞান করে বরিশালের কাশিপুর এলাকায় রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ মোঃ জাহিদ হোসেন কে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে এবং তিনদিন পর সে সুস্থ্য হয়। জাহিদ হোসেন এই অটোচোর চক্র গ্রেফতারের খবর পেয়ে ঝালকাঠি থানায় আসে এবং কী ভাবে সে এদের হাতে তার অটোটি চুরি হয়েছে তার বর্ণনা করেন। জাহিদ হোসেন কারটি সনাক্ত করেছেন তবে, কারটির নেইমপ্লেট পরিবর্তন করা হয়েছে। পুলিশের ধারণ এই চোর চক্রের ব্যবহৃত কারটি চোরাই কার হতে পারে।

 5,058 total views,  1 views today