ঝালকাঠিতে কালিকাপুর মডেলে পারিবারিক সবজি বাগান সম্প্রসারণ করা হচ্ছে

বাধন রায়,ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠিতে সদর উপজেলার দশটি ইউনিয়নে ৩২০ জন কৃষক পরিবারকে ২০২০-২০২১ মৌসুমে পারিবারিক কৃষির আওতায় সবজি পুষ্টি বাগান স্থাপনের জন্য উপকরণ ও অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বেলা ১২ টাকা ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়নে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বিতরণ অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।                            

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজি আক্তারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান প্রধান অতিথি ছিলেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মইন তালুকদার ও ইসরাত জাহান সোনালী। অন্যদের মধ্যে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রিফাত সিকদার। প্রতি কৃষক পরিবারের কাছে ১০ ধরণের সবজি বীজ তুলে দেয়া হয়েছে। কৃষক পরিবার তাদের বাড়ির আঙ্গীনায় ৫ বর্গ মিটার যায়গায় ৫টি প্লটকরে লতা জাতীয় ও লালশাক, পুঁইশাক, কলমি শাক ইত্যাদি চাষাবাদ করবেন।     

এই কাজের জন্য কৃষি বিভাগ কৃষক পরিবারকে বেড়া তৈরীর জন্য ১ হাজার টাকা, পরিচর্যার জন্য ৫শ টাকা এবং জৈব-অজৈব সার ক্রয়ের জন্য ৪৩৫ টাকাসহ ১৯শত ৫০টাকা প্রদান করবেন। এই অর্থ কৃষকের মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রেরণ করা হবে। পারিবারিক সবজি বাগান কালিকাপুর মডেল অনুসরণ করে এই ধরণের চাষাবাদ সম্প্রসারণের জন্য এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রধান মন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতি জনিত কারণে আবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি মন্ত্রণালয় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

 4,867 total views,  1 views today