বাংলাদেশে করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু,শনাক্ত ২৬৮৬

 ঢাকা থেকে,মহিবুর রহমান আদনান: বাংলাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় নতুন করে ২৬৮৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আজ শনিবার (১১ জুলাই) দুপুর আড়াইটায় কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।                                           

তিনি জানান, কোভিডে মোট মারা গেছেন ২৩০৫ জন। মোট শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮১ হাজার ১২৯ জন। মৃতদের মধ্যে পুরুষ ২৫ জন এবং নারী পাঁচজন। এদের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব তিনজন, চল্লিশোর্ধ্ব তিনজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব আটজন, ষাটোর্ধ্ব ১২ জন, সত্তরোর্ধ্ব তিনজন ও ৮০ বছরের বেশি বয়সী একজন ছিলেন। এদের ১৩ জন ঢাকা বিভাগের, ১০ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, তিনজন রাজশাহী বিভাগের, তিনজন খুলনা বিভাগের এবং একজন বরিশাল বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৭ শতাংশ। হাসপাতালে মারা গেছেন ১৮ জন বাসায় ১১ এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে গেছেন ১ জন। ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১৪৭৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ১৯৩ জনের। মোট পরীক্ষা করা হয়েছেন ৯ লাখ ২৯ হাজার ৪৬৫ জন। নমুনা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ০ শতাংশ।                                                                                                                                             

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৬২৮ জন, মোট সুস্থ হয়েছেন ৮৮০৩৪ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮ দশমিক ৬০ শতাংশ। অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনের নেওয়া হয়েছে ৮৫৩ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনের আছেন ৩৫ হাজার ৭৬৮ জন। এছাড়া আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৫৫৪ জন, এ পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ১৮ হাজার ২৭৭ জন। বর্তমানে মোট আইসোলেশনে আছেন ১৭ হাজার ৪৯১ জন।                                        

আপনার সুস্থতা আপনার হাতে উল্লেখ করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে সকলের প্রতি আহবান জানানো হয়। বাংলাদেশে নভেল করোনাভাইরাসে (কভিড-১৯) সংক্রমিত প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। আর ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

 5,837 total views,  1 views today