শুক্রবার থেকে অস্ট্রিয়ায় পুনরায় মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে!

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ সম্মেলন শেষ করে দেশে ফেরত এসে অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জের নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদের এক বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বৈঠক শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সরকার প্রধান বলেন ক্রমবর্ধমান করোনার সংক্রমণ অব্যাহত বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা পুনরায় মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।                         

আগামী শুক্রবার ২৪ জুলাই থেকে ফার্মেসী, গণপরিবহনের সাথে সাথে সুপারমার্কেট,ব্যাংক ও পোস্ট অফিসেও সকলের জন্য মাস্ক পড়ার নিয়ম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সোজা কথায় বলতে গেলে এখন থেকে পূর্বের মতোই দৈনন্দিন প্রয়োজনে যেখানেই যাবেন নাক ও মুখ বন্ধনি অর্থাৎ মাস্ক পড়ে যেতে হবে।                                

প্রেস ব্রিফিংয়ে তার সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন ভাইস চ্যান্সেলর ভার্নার কোগলার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার। স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার বলেন,আমরা করোনা ভাইরাসের কভিট-১৯ এর দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবে পুনরায় সারা দেশ লক ডাউন না করে জেলা ভিত্তিক বা এলাকা ভিত্তিক লক ডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সংক্রমণের প্রকট অনুযায়ী লাল,কমলা,হলুদ ও সবুজ রং এর দ্বারা চিন্হিত করা হবে। আমরা আগামী আগস্ট মাস থেকে এর প্রয়োগ শুরু করবো। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার বলেন আমাদের দেশের সমস্ত সীমান্তে পুনরায় রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনীকেও নিয়োজিত করা হয়েছে। পুলিশকে করোনার প্রাথমিক উপসর্গের পরীক্ষা ও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।                                                     

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৮৪ জন,যার মধ্যে রাজধানী ভিয়েনায় ৩২ জন। তবে গত প্রায় এক সপ্তাহে কেহ মারা যান নি। এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৯,৮২৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭১০ জন। অবশ্য কয়েকদিন যাবৎ বলা হয়েছিল ৭১১ জন। একজন করোনায় মৃত্যুবরণ করেন নি বলে পুনরায় সংশোধন করা হয়েছে। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৭,৭১৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৪০১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন ১১৪ জন। অধিকাংশ করোনায় আক্রান্ত মানুষকে নিজ নিজ বাড়িত আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে।

 6,594 total views,  1 views today