ঝালকাঠিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মাটিকাটা ও বৃক্ষ রোপন

 বাধন রায়, ঝালকাঠিঃ ঝালকাঠি সদর উপজেলার গাবখান মৌজার বৈদারাপুর গ্রামের ঘরবাড়ি না থাকা নাল জমিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মাটিকেটে রাস্তা তৈরী এবং বৃক্ষ রোপন করা হয়েছে। এই মৌজার এসএ১১৬৩ দাগের উপর জায়গা দখলের পায়াতারা হিসেবেই এই কাজ বলে দাবী করেছে আদালতে প্রতিকার চাওয়া পক্ষ গোলাম ফারুক। এই সম্পত্তিতে ঝালকাঠির বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও প্রেসক্লাব সদস্য এবং আইনজীবি সমিতির সদস্য মরহুম এ্যাড আব্দুল বারি’র  পরিবারে অংশে রয়েছে।

শান্তি প্রিয় পরিবারের গোলাম ফারুকের জায়গায় মাটি কাটা শুরু করলে  ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ২০ জুলাই গোলাম ফারুক আদালতে নিষেজ্ঞার প্রতিকার চেয়ে এমপি১৭৫/২০ মামলা দায়ের করে এবং আদালত একই দিন বাদি পক্ষের স্বত্ত্ব দখলিয় ভুমিতে মাটিকাটসহ অন্য কোন কাজ থেকে রহিত করার জন্য ১৪৪/১৪৫ ধারা মতে নিষেজ্ঞা জারি করেন। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ঝালকাঠি থানা পুলিশ বিবাধী পক্ষের বেলায়েত হোসেন, শাখাওয়াত হোসেন, মোঃ মাসুদ ও কাঞ্চন আলী ফকিরের উপর নিষেধাজ্ঞার আদেশ জারী করে। কিন্তু বিবাদী পক্ষ পুনঃরায় মাটি কেটে রাস্তার মতো করে দুপাশে চারাগাছ রোপন করে।                            

বৃহস্পতিবার সরজমিনে গিয়ে এ বিষয়টি দেখা গেছে। বিবাদীপক্ষ দাবী করেছে এই জায়গায় ঘরবাড়ি তৈরী করার পরে সকল ওয়ারিশ ভুক্ত পরিবারের চলাচলের জন্য রাস্তা করার জন্য মাটি কাটা ও বৃক্ষ রোপন করা হয়েছে। বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে অবগত করা হয়েছিল। 

 

 6,105 total views,  1 views today