চরফ্যাশনের গৃহবধুর লাশের শেষ ঠিকানা বেওয়ারিশ !

 মোঃ তরিকুল ইসলাম,চরফ্যাশন প্রতিনিধিঃ ভোলার   চরফ্যাসন পৌরসভার  ১নং ওয়ার্ডে জলাবদ্ধ রাস্তার পাশে বিল থেকে উদ্ধার হওয়া মৃত  খাদিজার লাশ । ময়না তদন্ত শেষে তার শেষ ঠিকানা হয়েছে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে।

পুলিশি তদন্ত শেষে পরিবারবর্গ লাশ সনাক্ত করে নিয়ে যেতে অপরাগতা প্রকাশ করায়, অবশেষে ভোলায় আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম খাদিজার লাশ দাফন করে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে!গৃহবধু খাদিজার বিদায়ে মৃত খাদিজার লাশ সনাক্ত করে তার ফুফু ও ফুফাতো বোন।খাদিজার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে  পুলিশ জোর চেষ্টা  চালাচ্ছে। এলাকার একাধিক সূত্র বলছে বিভিন্ন কারনে এই হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ততার তীর বাবার দিকে।পুলিশ বলছে খাদিজার বাবা ফারুক  হোসেন কে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা।

 এই ঘটনা বিভিন্ন মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় গতকাল সোমবার রাতে খাদিজার  ফুফু ও ফুফাতো বোন কে থানায় ডেকে আনা হয়।খাদিজার লাশ সনাক্তের পরে তারা বলছে খাদিজার রহস্যময় মৃত্যুর বিষয়ে তারা কিছুই জানেনা।     

পুলিশ বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে চরফ্যাসন থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস, আই, নাজমুল জানান, রবিবার খাদিজার  ফুফু ও ফুফাতো বোনকে রহস্যময় মৃত্যুর  বিষয়ে তদন্তের স্বার্থে থানায় ডেকে আনা হয়।দীর্ঘ সময় ধরে ম্যাজিস্ট্রেটের সম্মুখে  জবানবন্দি নেয়ার পরে তাদের দুজনকে ছেড়ে দেয়া হয় ৷

জাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে জানানো হয় লাশ দাফনের জন্য তার বাবাকে নিয়ে যেতে। বাবা সাফ জানিয়ে দেয় খাদিজা নামে কাউকে সে চিনেনা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে  জাহানপুরের একাধিক সূত্র সাংবাদিকদেরকে জানিয়েছেন, ফারুক  একাধিক বিবাহ করেছে। আগে একজন তালাক দিয়ে পরে  একাধিক বিয়ে করেছে। ছোটবেলায় মেয়েদের বিয়ে দেয়ার পরে মেয়েদের কোন খোঁজ খবর রাখেনা। খাদিজার অমতে বাবা ও ফুফুর প্ররোচণায় মাত্র ১৪ বছর বয়সে ঢাকায় তোফায়েল (৪৬) নামে এক সন্তানের জনকের সাথে খাদিজাকে বিয়ে দেন ৷ 

সম্প্রতি মোবাইলে অন্য কোন ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্কের অজুহাতে মারধরের কারনে স্বামীকে না বলে বাবার এলাকায় চলে আসার পরে বাবা তার মেয়েকে লোহার শিখলে বেঁধে রাখে।গত শুক্রবার রাতে ফুফুর বাড়িতে শিকল বাধাবস্হায় বাবা তাকে নিয়ে আসার পরদিন সকালে জলাবদ্ধ বিলের মাঝখানে মিলে হতভাগ্য খাদিজার লাশ !

চরফ্যাশন থানা অফিসার ইনচার্জ মনির হোসেন বলেন, এই মামলার তদন্ত চলছে, হত্যার রহস্য শীর্ঘই উদঘাটিত হবে । আসামি সনাক্ত হলে মুল রহস্য উদঘাটন হবে।

 

 6,737 total views,  1 views today