চরফ্যাশন হাসপাতালে প্রশাসনের অভিযানে ৪ দালাল আটক

 মোঃ তরিকুল ইসলাম চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে  আজ বুধবার  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রুহুল আমিন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ্বাসের অভিযানে হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ঔষধের দোকান থেকে ৪ দালালকে আটক করে। 

অনেকদিন যাবৎ চরফ্যাশন হাসপাতালে দালালের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সাধারণ রোগী। ডাক্তার দেখানোর আগে দালাল হাজির রোগীর যানবাহন ঘিরে।  এ বিষয়ে ভূক্তভোগীদের অভিযোগ প্রশাসনের দৃস্টিগোচর হলে আজ দুপুর সোয়া ১২টার দিকে প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করেন।

স্হানীয় সংসদ সদস্য  আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব  জনগনের স্বাস্হ্যসেবা নিশ্চিত করতে চরফ্যাশন সরকারী হাসপাতাল, প্রাইভেট হাসপাতাল এবং ডায়াগনন্টিক গুলোতে দালাল মুক্তের   নির্দেশনা দেয়া রয়েছে।

এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দালালমুক্ত রাখতে  উপজেলা নির্বাহি অফিসারের  নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়৷

অভিযানে চরফ্যাশন হাসপাতল চত্বর থেকে দালাল চক্রের চার সদস্যকে আটক করা হয়৷এরা হলেন, ঔষধের দোকানের দালাল  জিন্নাগড় ১নং ওয়ার্ডর ছালামতের ছেলে শান্ত (২০), মাইক্রো ড্রাইভার হাজারীগঞ্জ ৮নং ওয়ার্ড মৃত আক্তার মিয়ার ছেলে সজিব (২০),ডায়াগনস্টিক দালাল চরকলমির জলিল বেপারীর ছেলে মিজান (২৬), প্রাইভেট হাসপাতালের দালাল চরনাজিমদ্দিন গ্রামের শফিউল্লাহর ছেলে নিরব (২৮)৷

আটককৃতদের দুপুর দেড়টায় ১টায় উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের কক্ষে হাজির করার পরে প্রত্যেককে  ৫ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। মুসলেকা দিয়ে আর কখনো এমন দালালী পেশার সাথে ভবিশ্যতে  সম্পৃক্ত না থাকার অঙ্গীকার করলে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়৷

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন ইউরো সমাচারকে বলেন,হাসপাতাল থাকবে সম্পূর্ন দালালমুক্ত। তিনি সকল সংবাদকর্মিদের সার্বিক সহযোগিতা চান। এরপর হাসপাতাল চত্বরে কোন দালালকে পাওয়া গেলে  তার জায়গা হবে জেল হাজতে।

 

 6,823 total views,  1 views today