ভোলার ৯ গুণীর হাতে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সম্মাননা তুলে দিলেন এমপি শাওন

জাহিদুল ইসলাম দুলাল/তপতী সরকার, লালমোহন ভোলা থেকেঃ ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনের এমপি আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেছেন, বর্তমান সরকার মিডিয়া বান্ধব সরকার। এই সরকারের আমলে সংবাদপত্র সবচেয়ে বেশি স্বাধীন। সংবাদকর্মীরা যাতে নিরাপদে কাজ করতে পারে সেজন্য সাংবাদিকদের উন্নয়নের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

ভোলার লালমোহনে ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ সকালে  লালমোহন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় হলরুমে  লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি শাওন এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন-আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবসে লালমহোন মিডিয়া ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল আজ থেকে ৮ বছর আগে। অত্যন্ত নিরপক্ষতার সাথে তারা প্রতিবছর বিভিন্ন বিষয়ে গুণীদের  নির্বাচিত করে সম্মামনা প্রদান করে আসছে। এ জন্য লালমোহন মিডিয়া ক্লাবকে ধন্যবাদ। আমরা ভালোকে ভালো, কালোকে কালো বললেই- সমাজ থেকে থেকে অবক্ষয় ও অপরাধ কমে যাবে।

লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজান হাওলাদার এর উপস্থাপনায় মিডিয়া ক্লাব সভাপতি কবি রিপন শান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মাননা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন লালমোহন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ গিয়াসউদ্দিন আহমেদ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লালমোহন সার্কেল মোঃ রাসেলুর রহমান।  

“গণমাধ্যম জীবনের আয়না, সংবাদকর্মী জাতির বিবেক”  এই শ্লোগানে ২০১২ সালে লালমোহনের সন্তান কবি রিপন শান এর হাত ধরে ভোলার লালমোহনের একঝাঁক আধুনিক চিন্তা চেতনায় বিশ্বাসী সংবাদকর্মীর যৌথ প্রয়াসে আত্মপ্রকাশ করে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নানাবিধ সামাজিক সাংস্কৃতিক মানবিক কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে সাংগঠনিক সুনাম বিস্তৃত করেছে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব । অষ্টম বছর শেষ করে নবম বর্ষে পদার্পণের এই মহতী সময়ে সমাজ সংস্কৃতির বিভিন্ন  ক্ষেত্রে মূল্যবান অবদানের  স্বীকৃতি  স্বরূপ স্বদেশ ও বিদেশে ক্রিয়াশীল ভোলার ৯ গুণীকে সম্মাননা প্রদান ও ক্রেষ্ট বিতরন করল লালমোহন মিডিয়া ক্লাব।  

 

সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে, করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে, নির্বাচিত গুণীজনদের হাতে তুলে দেয়া হয় লালমোহন মিডিয়া ক্লাব পুরস্কার ২০২০। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এমপি শাওন  ৯ গুনী ব্যাক্তিকে ক্রেষ্ট তুলে দেন। বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে যারা সম্মামনা পেলেন তারা হলেন  ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক (সুশাসনে), অস্ট্রিয়া বাংলাদেশ প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক ইউরো সমাচার সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান (বিশ্ব সাংবাদিকতায়), চরফ্যাসন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কায়সার আহমেদ দুলাল (সাহিত্যে), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লালমোহন সার্কেল জনাব মোঃ রাসেলুর রহমান (সামাজিক ন্যায়বিচার), অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম কবির (সমাজকল্যাণ), লালমোহন পৌরসভা আওয়ামীলীগের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আলহাজ্ব সফিকুল ইসলাম বাদল (জনসেবায়), লালমোহন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক জনাব নুর মোহাম্মদ মাস্টার (শিক্ষায়), বিবিসির ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট রাকিব হাসনাত সুমন (সাংবাদিকতায়), এবং ওয়াটার এন্ড স্যানিটেশন ফর আরবান পুয়র ‘ডব্লুইএসইউপি’ সংস্হার ফিন্যান্স ম্যানেজার মাকসুদ তালুকদার (এনজিও সমাজকর্ম)।

অনুষ্ঠানে পুরস্কারপ্রাপ্তরা তাদের অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন সম্মান পেতে সকলেরই ভালো লাগে। গুণী লোকের গুনের সম্মান করলেই দেশে গুণী জন্মাবে। সম্মাণীত লোককে সম্মাণীত করলেই আত্নতৃপ্তি পাওয়া যায়।  আমাদেরকে নির্বাচন করার জন্য লালমোহন মিডিয়া ক্লাবকে অভিনন্দন।

অনুষ্ঠান শেষে জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেক কাটা হয়। অনুষ্ঠানে লালমোহনের সুধীজন, গন্যমান্যব্যাক্তি, আওয়ামীলীগের বিভিন্ন নেতাকর্মী এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে কবি রিপন শান এর “বিশ্বনেত্রী আমার শেখ হাসিনা” কবিতা আবৃতি করেন  সুমাইয়া ইফরান নদী।  

 8,139 total views,  1 views today