ঢাকা জাতীয় হৃদরোগ ইন্সিটিউটের সহকারী রেজিস্টার ডাঃ আল-আমিন এর আবেগঘন স্ট্যাটাস

সমাচার ডেস্কঃ করোনায় আক্রান্ত হয়ে  চিকিৎসাধীন অবস্থায়  ডাঃ মঈন উদ্দিন মৃত্যু বরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। ওনাকে নিয়ে ভোলা জেলার লালমোহনের সন্তান   জাতীয় হৃদরোগ ইন্সিটিউটের সহকারী রেজিস্টার ডাঃ আল-আমিন এর আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন তার ফেইস বুক আইডি তে, ইউরো সমাচার পাঠকদের জন্য তা হুবুহু তুলে ধরা হলঃ ডাক্তার মইন,, প্রিয় বড় ভাই চলে গেলেন আমাদের ছেড়ে!! আমার প্রহর গুলো সব আজ বেদনার স্রোতে ভেসে ভেসে বড্ড ক্লান্ত মইন ভাই!! আচ্ছা মইন ভাই ,আপনিও তো আমার মত একদিন মেডিকেলে চান্স পেয়ে খুব খুশি হয়েছিলেন। আমার মতো আইটেম পরীক্ষা দিয়েছেন, কার্ড পরীক্ষা দিয়েছেন, টার্ম পরীক্ষা দিয়েছেন, না ঘুমিয়ে প্রফ দিয়েছেন!! পাস করে খুশি হয়েছেন হয়তো কখনো ফেল করে ভেঙে পড়েছেন!! কখনো থেমে থাকেননি!! একদিন ডাক্তার হয়ে ভীষণ খুশি হয়েছিলেন তাই না?? না ঘুমিয়ে নাইট ডিউটি করেছেন, বিনা বেতনে অনারারী করেছেন, চাকরি পেয়ে ভীষণ খুশি হয়েছেন, সহকারি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেয়ে খুশি হয়েছেন!!                                              

কেউ ভাবেনি মৃত্যু এভাবে আপনাকে কেড়ে নিবে!! আপনি আমার ঢাকা মেডিকেলের সিনিয়র ভাই, আমার মত আপনার পদধ্বনিতে মুখর হয়েছিল ঢাকা মেডিকেল কলেজের ক্লাস রুম, চত্বর, হাসপাতাল, হোস্টেল, ক্যান্টিন, খেলার মাঠ। আপনারও আমার মত একটা পরিবার আছে!! আপনার বাচ্চারা নিশ্চয়ই আমার বাচ্চার মত আপনার পেটের উপর উঠে লাফালাফি করেছে!! আমার বাচ্চার মত বায়না ধরেছে আইসক্রিম দাও, চিপস দাও, বেড়াতে নিয়ে যাও…. এখন ওরা কার কাছে বায়না ধরবে??              

ধীরে ধীরে সবাই ভুলে যাবে, রাষ্ট্র ভুলে যাবে, সরকার ভুলে যাবে, আপনার কলিগরা ভুলে যাবে, বন্ধুবান্ধব পরিচিত সবাই ভুলে যাবে!! মনে রাখবে আপনার পরিবার, ধুঁকবে আপনার সন্তান!!                  

কবি নইমজাহাঙ্গীর বলেছিলেন, হায়রে স্বজন হারানো কষ্ট…..! কোন সুনামি তোকে আর নিতে পারেনা ভাসিয়ে, তোর ভার যেন বেশি পৃথিবী থেকেও…! বুকের ভিতর জ্বলতে থাকা আগুন- বাতাসের তালে তালে বাড়ে আবার কমে, কখনোবা দাবানল হয়ে- জ্বালিয়ে দিয়ে যায় অবশিষ্ট সুখ টুকুনও…! মনের এই আগুনজ্বলা হায়… নিভে না কভু দুই সাগরের জলেও…।

 5,405 total views,  1 views today