Lufthansa তার ৩০,০০০ কর্মচারীকে ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে !

জার্মানিতে লকডাউন লাইট আসছে! জার্মানিতে আজ করোনায় আক্রান্ত ৯,১৬৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩২ জন

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ জার্মানির বিমান সংস্থা Lufthansa জানিয়েছে, করোনার জন্য যাত্রী ও ফ্লাইট হ্রাস পাওয়ায় তার ৩০,০০০ হাজার কর্মচারী চাকরী হারাতে যাচ্ছে।

সংবাদ সংস্থা এএফপি জানান,ইউরোপের বৃহত্তম এয়ারলাইন্স জার্মানির লুফথানসার নির্বাহী বোর্ড কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে একটি চিঠিতে বলেছে যে, বিমান সংস্থার উন্নয়ন কীভাবে বিকশিত হবে সে সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করা এখন “আগের তুলনায় আরও শক্ত।”

বর্তমানে বৈশ্বিক মহামারীর দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবের ফলে পুনরায় স্থবির হয়ে পড়েছে ইউরোপ সহ সমগ্র বিশ্ব। এই অচলাবস্থা থেকে কবে নাগাদ দ্রুত পুনরুদ্ধার সম্ভব হতে পারে তা নিয়ে সামান্য অস্পষ্টতা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন দেশে পুনরায় করোনার কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের ফলে বিমানে ভ্রমণকারীদের সংখ্যাও ব্যাপক হ্রাস পেয়েছে। এর ফলে লুফথানসা ১৯৭০ সালের পর এই প্রথম ব্যাপক সিডিউল বাতিল ও পরিবর্তন করতে হয়েছে,যার ফলশ্রুতিতে সংস্থাটি ব্যাপক অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে।

তাই Lufthansa গ্রুপ তার এই অর্থনৈতিক বিপর্যয় কিছুটা কমিয়ে আনার উদ্দেশ্যে তার ১ লক্ষ ৩০ হাজার কর্মচারীর মধ্যে ৩০ হাজার কর্মচারী কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ফরাসী সংবাদ সংস্থা এএফপি। জার্মানির সরকার গত জুনে লুফথানসা গ্রুপের ২৫ শতাংশ শেয়ার নেওয়ার ঘোষণা এবং ৯ বিলিয়ন ইউরোর করোনাকালীন আর্থিক সহায়তা দিয়েছিল। কিন্ত জার্মানি সহ সমগ্র ইউরোপের করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গে সব ভেসে যাচ্ছে। জার্মানির বিশাল এই Lufthansa এয়ারলাইন্সের অংশীদারিত্ব রয়েছে সুইজারল্যান্ডের সুইস এয়ার,অস্ট্রিয়ার অস্ট্রিয়ান এয়ারলাইন্স,বেলজিয়ামের ব্রাসেলস এয়ারলাইনস এবং ইউরোয়িংস এয়ারলাইন্সে।

লুফথানসার নির্বাহী বোর্ড জানায়,তার প্রাথমিকভাবে তাদের প্রশাসনিক কার্যাদি প্রায় ৩০ শতাংশ হ্রাস করবে এবং ফ্রাঙ্কফুর্টে ইউরোয়িংস এর মূল অফিসের বেশিরভাগ শাটার বন্ধ করবে। ইউরোয়িংস পুরোপুরি Düsseldorf এ তাদের অফিস বন্ধ করে দিবে।

সংস্থাটি এই বৎসরের তৃতীয়-চতুর্থাংশের পরিসংখ্যানে মোট ১,৩ বিলিয়ন ডলার অপারেটিং ক্ষতির কথা জানিয়েছেন। তবে ২০২০ এর শেষের তিন মাসে এই ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়বে।

এদিকে জার্মানিতে ক্রমবর্ধমান করোনার সংক্রমণের বৃদ্ধির ফলে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মের্কেল একটি “লকডাউন লাইট” করার পরিকল্পনা করছেন বলে জানিয়েছেন অস্ট্রিয়ান অন লাইন পোর্টাল Oeb24. প্রাথমিক খবরে বলা হয়েছে অনেকটা ইতালির মতোই সন্ধ্যার পর রেস্তোঁরা এবং বিভিন্ন ধরনের বার,ডিসকো অর্থাৎ কয়েক সপ্তাহের জন্য সমস্ত রাত্রিকালীন কার্যকলাপ স্থগিত করা হবে।

জার্মানিতে এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ ৪৬ হাজার ৮০৫ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০ হাজার ১৭০ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৬০০ জন।

 10,003 total views,  1 views today