অস্ট্রিয়ায় করোনার “লকডাউন লাইট” সম্পর্কে শনিবার ঘোষণা !

ভিয়েনা এখন করোনার লাল জোনে ! Innsbruck ক্লিনিকে আইসিইউ পূর্ণ হওয়ার কারণে সিডিউল অস্ত্রোপচার স্থগিত !                  

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ শনিবার ৩১ অক্টোবর অস্ট্রিয়ায় “লকডাউন লাইট” সম্পর্কে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে জানিয়েছেন সংবাদ সংস্থা এপিএ। সরকারী সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে এপিএ জানায়,জার্মানির আদতেই অস্ট্রিয়ায় “লকডাউন লাইট” প্রবর্তনের প্রস্ততি নিচ্ছেন সরকার। বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় অস্ট্রিয়ার করোনাসকমিশন রাজধানী ভিয়েনা সহ প্রায় সমগ্র অস্ট্রিয়াকেই করোনার লাল জোন ঘোষণা করা হয়েছে।                                                                                                                                                                         

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ার Tirol রাজ্যের Innsbruck University Clinic কর্তৃপক্ষ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান,তাঁদের ক্লিনিকে করোনার রোগীদের জন্য আইসিইউ বেশী ব্যবহার হওয়ায় অন্যান্য সিডিউল অস্ত্রোপচার স্থগিত করতে বাধ্য হচ্ছেন। সংবাদ সংস্থা আরও জানান আজ সকালে অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর কার্যালয়ে সরকারের সাথে সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞদের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকের পর এক সাংবাদিক সম্মেলনে সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ জানান শুক্রবার সামাজিক অংশীদারদের সাথে সরকার এক বৈঠক করবেন এবং শনিবার অস্ট্রিয়ার বিরোধীদলের সাথেও এক বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। তারপরে সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হবে। সবশেষে সংসদের মূল কমিটি কর্তৃক অবশ্যই পরিকল্পিত”লকডাউন লাইট” সমর্থিত হতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জ বলেছেন যে, বর্তমানে অস্ট্রিয়ার করোনার সংক্রমণের বৃদ্ধি আমাদের আশঙ্কার সময়ের অনেক পূর্বেই চলে এসেছে। আমাদের হাসপাতাল ও আইসিইউ অনেক রাজ্যে এখনই পূর্ণ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। তাই খুব দ্রুত একটি লকডাউন যা সম্ভবত জার্মানির মডেলের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার বলেন “আমাদের এখনই জরুরী পদক্ষেপ নিতে হবে।                                               

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন যে,পরিসংখ্যান অনুযায়ী আগামী সপ্তাহে করোনার সংক্রমণ ৫,৮০০ এ পৌঁছে যেতে পারে। চ্যান্সেলর কুর্জ জানান, সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে,যখন প্রতিদিনের সংক্রমণ ৬,০০০ এ পৌঁছে যাবে তখন শেষ প্রতিকার হিসাবে দেশ লকডাউন করা ছাড়া আর কোন বিকল্প পথ খোলা অবশিষ্ট থাকে না। সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরা আগামী সপ্তাহেই সংক্রমণ ৬,০০০ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছানোর সতর্কতা দিয়েছেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছেন ৪,৪৫৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন একদিনের সর্বোচ্চ ২৯ জন। আজ অস্ট্রিয়ার বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে Niederösterreich রাজ্যে একদিনের সর্বোচ্চ রেকর্ড সংখ্যক ১,০৭৪ জন সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন। রাজধানী ভিয়েনাতে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৮২১ জন। OÖ রাজ্যে ৭৯৬ জন,Tirol রাজ্যে ৫৮৪ জন,Steiermark রাজ্যে ৩৫৫ জন, Vbg রাজ্যে ২৭৬ জন,Salzburg রাজ্যে ২৬২ জন, Kärnten রাজ্যে ১৬৬ জন এবং Bgld রাজ্যে ১১৯ জন সংক্রমিত হয়েছেন। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯৩,৯৪৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১,০৫৬ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৬৩,৩৬৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৯,৫২৭ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ২৪৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১,৬৮২ জন। বাকীরা নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 10,446 total views,  1 views today