গুলিবিদ্ধ আহত পুলিশ ও এক মহিলাকে ফিল্মী স্টাইলে উদ্ধার করায় দুই তুর্কী বন্ধুর প্রশংসায় অস্ট্রিয়ার জাতীয় মিডিয়া !

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪,১৮২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৩ জন

নিউজ ডেস্কথেকে,কবির আহমেদঃ  সোমবার ২ নভেম্বর ভিয়েনায় সন্ত্রাসীদের এলোমেলো গোলাগুলির সময় ফিল্মী স্টাইলে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গুলিবিদ্ধ এক আহত পুলিশ অফিসার ও এক মহিলাকে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে দুই তুর্কী বন্ধুর প্রশংসায় পঞ্চমুখ অস্ট্রিয়ার জাতীয় মিডিয়া। তাদের মধ্যে অন্যতম মিকাইল ওজেন (২৫) মিডিয়ার সাথে এক সাক্ষাৎকারে বলেন,তাৎক্ষণিকভাবে একজন সচেতন নাগরিক ও মানুষ হিসাবে আমাদের আমাদের যা করা উচিত ছিল আমরা তাই করেছি।

মিকাইল ওজেন জানায়, লকডাউনের একদিন পূর্বে শেষ কফি পানের জন্য আমি আর আমার বন্ধু রেসেপ গুল্টকিন (২৪) ভিয়েনার এক নাম্বার ডিস্ট্রিক্টের সুইডেনপ্লাসের সন্ত্রাসীদের হামলার কাছেই একটি কফি হাউজে কফি পান করছিলাম। এমন সময় দেখতে পেলাম বন্ধুকদারী সন্ত্রাসীরা ফ্রী স্টাইলে অটোমেটিক বন্ধুক দিয়ে মানুষকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ছে। তখন আমারও প্রথমে কিছুটা নিরাপদে চলে গেলাম। তারপর দেখলাম আমাদের কাছেই এক মহিলা গুলিবিদ্ধ হয়ে কাতরাচ্ছে,তাই আমরা আর দেরী না করে দুই জনে মহিলাকে উঠিয়ে প্রধান সড়কে দন্ডায়মন থাকা এম্বুলেন্সে নিয়ে গেলাম। যাবার সময় এক পুলিশ অফিসারকেও গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখলাম। তারপর আমরা সেই পুলিশ অফিসারকেও আরেকটি এম্বুলেন্সে নিয়ে গেলাম।                         

ওজেন আরও বলেন, “আমি তুর্কি বংশোদ্ভূত মুসলমান, আমি অস্ট্রিয়াতে থাকি, আমি অস্ট্রিয়াতে জন্মগ্রহণ করেছি, আমি অস্ট্রিয়াতে স্কুলে গিয়েছিলাম এবং বর্তমানে আমি একজন ব্যবসায়ী।” আমি এবং আমরা সকল ধরণের সন্ত্রাসকে ঘৃণা করি। সন্ত্রাসীরা মানুষ নয়, তারা যেই ধর্মের লোকই হোক না কেন।      

আজ রাজধানী ভিয়েনায় করোনায় আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছেন ৮৩০ জন। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১,১৮,১৯৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১,১৯২ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৭৪,২৯২ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪২,৭১৪ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৩৬৬ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,৪৩১ জন। অবশিষ্টরা নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 10,646 total views,  1 views today