অস্ট্রিয়ায় লকডাউন ও কারফিউ জারির পরও কমছে না করোনার সংক্রমণ !

আজ স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের তথ্যসূত্রে করোনায় আক্রান্ত সনাক্ত ৬,২১১ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৫ জন                                        

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের প্রেস ব্রিফিংয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ হাসপাতালের করোনার রোগীদের জন্য সংরক্ষিত বেডের ৭০% পূর্ণ হয়ে গেছে। গত সাত দিনের ইউরোপী ইউনিয়নের (এজিইএস) ড্যাশবোর্ডের ডাটা অনুযায়ী অস্ট্রিয়ায় বর্তমানে প্রতি এক লক্ষ জনপদে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭৯ জন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অনুরোধে অস্ট্রিয়ার করোনা কমিশন এখন সংক্রমণের ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধি এবং লকডাউন ব্যবস্থাগুলির মূল্যায়ন করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবেন। সংবাদ সংস্থা এপিএ জানান,সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞদের এক পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী কয়েকদিনে এই অবস্থার কোন উন্নতি আশা করা যাচ্ছে না। তারা আরও জানান,বর্তমান লকডাউন ও কারফিউ এর সুফল পেতে হলে আমাদের ১৪ দিন অপেক্ষা করতে হবে। বুধবার সংক্রমণের বৃদ্ধি শতকরা ২১% অতিরিক্ত বেড়েছে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।                             

অস্ট্রিয়ার Tirol রাজ্যের সাধারণ রোগীদের অস্ত্রোপচার আইসিইউ স্বল্পতার জন্য স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন। অন্যান্য রাজ্যের অবস্থাও অনেকটা একই রকম অবস্থা। করোনার ভাইরাসের সংক্রমণ বর্তমানে অস্ট্রিয়ার পশ্চিমের রাজ্যগুলির মধ্যে বেশ বিস্তৃতি লাভ করছে। আজ OÖ রাজ্যে করোনার সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছে ১,৫১০ জন এবং Tirol রাজ্যে সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছে ১,১৪৩ জন। তবে রাজধানী ভিয়েনায় সংক্রমণ বিস্তার বর্তমানে কয়েকদিন যাবৎ প্রায় একই রকম অর্থাৎ কিছুটা স্থিতিশীল অবস্থায় আছে।                      

আজ ভিয়েনায় সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছেন ৮৪৫ জন। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট করোনার আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ২৪ হাজার ৪০৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১,২২৭ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৭৭ হাজার ৩৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪৬ হাজার ৮৩৬ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৩৮৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,৫৮৪ জন। বাকীরা নিজের বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 10,234 total views,  1 views today