আজ মধ্য রাত থেকে অষ্ট্রিয়ায় “সম্পূর্ণ লকডাউন” কার্যকর

১৭ নভেম্বর থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত লকডাউন

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ লকডাউনের পূর্বে অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার ভ্যান ডের বেলেন এর দেশের জনগণের প্রতি অনুরোধ -“দয়া করে সংহতি দেখান” এবং প্রত্যেকে করোনার বিধিনিষেধ ও প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা অনুসরণ করে চলুন।”দুর্ভাগ্যক্রমে, মহামারীটি থেকে বেড়িয়ে আসতে আমাদের এখন কঠোর লকডাউন প্রয়োজন। তিনি আগামীকাল থেকে প্রযোজ্য বিধিনিষেধ মেনে চলার জন্য সমস্ত অস্ট্রিয়াবাসীর কাছে আবেদন করেছেন।

অস্ট্রিয়ার ফেডারেল রাষ্ট্রপতি করোনার পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে ডাক্তারদের ফোন করেছিলেন বলে তার ফেসবুক একাউন্টে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে জানিয়েছেন। কিন্ত তিনি দুঃখ করে বলেন,আমাদের হাসপাতাল গুলি করোনা আক্রান্তদের দ্বারা পূর্ণ হয়ে যাওয়ার পথে। তাই তিনি সকলকে সর্বোচ্চ সতর্কতা ও সরকারের বিধিনিষেধ যথাযথভাবে মেনে চলার অনুরোধ করেন।  

আজ অস্ট্রিয়ান মুসলিম কমিউনিটি (IGGÖ) কর্তৃপক্ষ তাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে নির্দেশনা জারি করে জানান,মঙ্গলবার ১৭ নভেম্বর থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত অস্ট্রিয়ার সকল মসজিদে ওয়াক্তের জামাতে নামাজ ও জুম্মার নামাজ সহ সকল প্রকার সম্মিলিত ইবাদত করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির জন্য স্থগিত করা হয়েছে। তবে মসজিদ সমূহ খোলা থাকবে এবং মাস্ক ও করোনার যাবতীয় বিধিনিষেধ মেনে মসজিদে একাকী নামাজ পড়া যাবে। অবশ্য এই নির্দেশনা অস্ট্রিয়ার অন্যান্য উপাসনালয়েও দেওয়া হয়েছে।   

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৪,৬৫৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৮ জন। আজ রাজধানী ভিয়েনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৫০৫ জন। অস্ট্রিয়ার অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে Niederosterreich রাজ্যে ১,০৩৮ জন,Tirol রাজ্যে ৫৭৮ জন,Salzburg রাজ্যে ৪৬৮ জন,Steiermark রাজ্যে ৪১৭ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৩২৯ জন, Burgenland রাজ্যে ২২৩ জন এবং Kärnten রাজ্যে ১৮২ জন।               

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২,০৮,৬১৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১,৮৮৭ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ১,২৯,৬৭১ জন। বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৭৭,০৫৫ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইউতে আছেন ৬১২ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪,২৯৭ জন। বাকীরা নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 10,440 total views,  1 views today