অস্ট্রিয়ায় করোনার সংক্রমণের বিস্তার কমছে কিন্তু সাথে সাথে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে -স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ শনিবার ২৮ নভেম্বর অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার স্থানীয় একটি সম্প্রচার কেন্দ্রে এক সাক্ষাৎকারে বলেন,অস্ট্রিয়ায় করোনার পরীক্ষা রেকর্ড সংখ্যক বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্তমানে আমাদের দেশে সংক্রমণের বিস্তার কমতে শুরু করেছে কিন্ত দুর্ভাগ্যক্রমে গত কয়েক দিনে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় একদিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু সংখ্যা ১৩২ জন রেকর্ড করা হয়েছে। আজ শনিবার, লকডাউনের শেষ সপ্তাহের আগে, প্রথমবারের মতো নতুন সংক্রমণের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে। নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র আইসিইউতে (-১৫%) সহ হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা ( -১২৬ জন) প্রথমবারের জন্য কিছুটা কমেছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার। তিনি এক পরিসংখ্যানের ছক দেখিয়ে বলেন, নভেম্বর মাসের প্রথম শনিবারে সংক্রমণ উঠেছিল ৮,২৪১ জনে। দ্বিতীয় শনিবারে ৭,০৬৩ জন,তৃতীয় শনিবার ৬,৬১১ জন এবং আজ ৪,৬৬৯ জন সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।  

তিনি সতর্ক করে বলেন, প্রাথমিকভাবে সংক্রমণ কিছুটা কমলেও সংক্রমণ বিস্তারের গতি এখনও বিপদজনক অবস্থায় আছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সকলকে অনুরোধ করে বলেন, আপনারা অব্যাহত সামাজিক যোগাযোগ হ্রাস ও এবং করোনার বিধিনিষেধ যথাযথ মেনে চলুন। তিনি আরও জানান,বয়স্ক মানুষের নার্সিংহোমে সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে পরীক্ষাও বাড়ানো হয়েছে।                                          

 

গত এক সপ্তাহে অস্ট্রিয়ার বিভিন্ন বয়স্ক নার্সিংহোমে ৩৩,০০০ হাজার করোনার টেস্ট করা হয়েছে। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট ৩০ লক্ষ ৬১ হাজার ৬৭ জনের করোনার পরীক্ষা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সরকার আগামী ডিসেম্বর মাস থেকে দেশব্যাপী করোনার গণ পরীক্ষার ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন।                      

রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছেন ৬৮২ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে Oberösterreich রাজ্যে ১,২১২ জন, NÖ রাজ্যে ৬৩৪ জন,Steiermark রাজ্যে ৫২৬ জন,Tirol রাজ্যে ৫০৯ জন,Kärnten রাজ্যে ৩৯৫ জন,Salzburg রাজ্যে ৩৬৯ জন,Vorarlberg রাজ্যে ২২৯ জন এবং Burgenland রাজ্যে ১১৩ জন নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।                            

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬৬১ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩,০১৮ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ২ লক্ষ ১০ হাজার ৬৯৭ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৬১,৯৪৬ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইউতে আছেন ৬৮৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪,২৭৯ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 10,282 total views,  1 views today