সুইডেনে গত নভেম্বর মাসে ১০০ বৎসরের মধ্যে সবচেয়ে বেশী মানুষের মৃত্যুবরণ !

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি সুইডেনের জাতীয় পরিসংখ্যান এজেন্সির উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছেন যে, গত নভেম্বর মাসে সুইডেনে ৮,০৮৮ জন মানুষ মৃত্যুবরণ করেছেন যা ১৯১৮ সালের “স্প্যানিশ ফ্লু” এর পর এই প্রথম একমাসে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। ১৯১৮ সালের নভেম্বর মাসে সুইডেনে স্প্যানিশ ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে ১৬,৬০০ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।                                               

সুইডেন পরিসংখ্যান ব্যুরোর মতে,নভেম্বর মাসে দেশটিতে মানুষের মৃত্যুর সংখ্যা গত ১০০ বৎসরের পর পুনরায় সর্বোচ্চ রেকর্ড গড়ল। শুধুমাত্র গত মাসে মৃত্যুবরণকারী মোট ৮,০৮৮ জন মানুষ যা পাঁচ বছরের গড় মৃত্যু ৭,৪৮৩ জনের তুলনায় মাত্র ১০ শতাংশ বেশী। ১৯১৮ সালের পর নভেম্বর মাসে এটিই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মৃত্যুর রেকর্ড। সুইডেনের জনসংখ্যা বিষয়ক অভিজ্ঞ পরিসংখ্যানবিদ টমাস জোহানসন এএফপিকে জানান স্প্যানিশ ফ্লুর পর ১০০ বৎসর পর এই প্রথম সুইডেনে এক মাসে সর্বোচ্চ মানুষের মৃত্যুবরণ রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান,নভেম্বর মাসের ১১ তারিখ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা রেকর্ড করা হয়েছিল ২৯২ জন। কিন্ত ১২ নভেম্বর থেকে ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত বাকী অধিকাংশ মানুষের মৃত্যুবরণ ঘটে,যা বিগত অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। ইউরোপের মধ্যে সুইডেনই একমাত্র দেশ যে করোনার প্রথম প্রাদুর্ভাবের সময় কোন লকডাউন বা কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ না করেই করোনা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছিল। কিন্ত করোনার দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবে দেশটিকে বেশ মূল্য দিতে হচ্ছে। নভেম্বর মাসে দেশটিতে প্রতি ১ লক্ষ মানুষের মধ্যে ৭৭.৯ জন মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে। তবে নভেম্বর মাসে মৃত্যুবরণকারী মানুষের মধ্যে বেশীরভাগ মানুষের বয়স ৬৫ বৎসর এবং তার উপরের বয়স্ক বৃদ্ধ মানুষ। তবে নভেম্বর মাসে সুইডেনে মারা যাওয়া ৮,০৮৮ জনের মধ্যে অনেকেই করোনার সংক্রমণ সনাক্ত ছাড়াই মৃত্যুবরণ করেছেন। সুইডেনে করোনার প্রথম প্রাদুর্ভাবের সময় আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৪১,০২৯ জন এবং মৃত্যুবরণ ৭,৬৬৭ জন রেকর্ড করার পর এখন আর পূর্বের মত করোনার সংক্রমণ,মৃত্যুবরণ বা আরোগ্য রেকর্ড করছে না।  

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২,৬২৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১১৮ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২৬ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৪৯১ জন OÖ রাজ্যে ৪৬৭ জন,Salzburg রাজ্যে ৩৯৭ জন,Steiermark রাজ্যে ৩০৭ জন, Kärnten রাজ্যে ৩০১ জন,Tirol রাজ্যে ২১৭ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৮২ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৪০ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন।                          

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩,২৭,৬৭৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪,৬৪৮ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ২,৮৭,৭৫০ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩৫,২৮১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৫৭৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৩,৫২৪ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 10,220 total views,  1 views today