দুর্বল হচ্ছে আটলান্টিকের স্রোত,ইউরোপের জলবায়ুতে বড় পরিবর্তনের আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উত্তর গোলার্ধে ঠান্ডা বাড়বে, আটলান্টিকে পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাবে, ইউরোপ ও উত্তর  আমেরিকায় বাড়বে বৃষ্টিপাতের পরিমান 

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ জার্মানির সংবাদ সংস্থা ডয়েচে ভেলে (DW) জানিয়েছেন উত্তর গোলার্ধের জলবায়ুর চালিকাশক্তি হিসেবে বিবেচিত আটলান্টিক মহাসাগরের স্রোত ক্রমশ দুর্বল হচ্ছে৷ এর ফলে সামনের দিনে বৈশ্বিক জলবায়ুতেই বড় ধরনের পরিবর্তনের আশঙ্কা করা হয়েছে সদ্য প্রকাশিত ইউরোপের একটি বৈজ্ঞানিক গবেষণায় একথা বলা হয়েছে।

ইউরোপের জলবায়ু নিয়ে ইউরোপের শীর্ষ বিজ্ঞানীদের একটি গবেষণা প্রকাশ করেছে ইউরোপ থেকে প্রকাশিত জার্নাল ‘নেচার ক্লাইমেট চেঞ্জ’। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ইউরোপের আবহাওয়া কেমন হবে তা অনেকাংশেই আটলান্টিক মেরিডোনিয়াল ওভারটার্নিং সার্কুলেশন বা আটলান্টিক মহাসাগরীয় স্রোত বলয়ের উপর নির্ভরশীল৷ এমনকি বৈশ্বিক জলবায়ুতেও রয়েছে এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা৷ জার্নালটি জানায়,সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে আটলান্টিকের স্রোতের ধরনে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এসেছে৷

ক্রান্তীয় অঞ্চলের উষ্ণ পানিকে উত্তর আটলান্টিকের দিকে প্রবাহিত করে আটলান্টিক মহাসাগরীয় বলয়৷ প্রতিবেদনের লেখক এবং জার্মানির পোটসডাম ইনস্টিটিউট ফর ক্লাইমেট ইমপ্যাক্ট রিসার্চ (পিআইকে) এর গবেষক নিকোলাস বোয়ের্স বলেন, গত শতাব্দিতে এই স্রোতধারা আগের চেয়ে কম স্থিতিশীল ছিল৷ সেখানে পানির প্রবাহ এখন গত এক হাজার বছরের মধ্যে সবচেয়ে দুর্বল বলে গবেষণায় উঠে এসেছে৷

গবেষক নিকোলাস বোয়ের্স আরও জানান, আটলান্টিক মহাসাগরীয় বলয় দুর্বল হওয়া শুধু তাপমাত্রা বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিচ্ছে না, বরং পানি প্রবাহের গোটা প্রক্রিয়াটিই ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে৷ এর ফলে সামনের দিনে উত্তর গোলার্ধে ঠান্ডা বাড়বে, আটলান্টিকে পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাবে, ইউরোপ ও উত্তর অ্যামেরিকায় বাড়বে বৃষ্টিপাতের পরিমান৷ সেই সঙ্গে ঋতুর পরিবর্তন ঘটবে দক্ষিণ অ্যামেরিকা ও আফ্রিকায় ৷

এদিকে CBS News আজ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন আটলান্টিক মহাসাগরের প্রচলিত স্রোত কমপক্ষে গত ১৬০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে দুর্বল আকারে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার বিজ্ঞানীরা। এই পরিবর্তনের ফলে ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডাতেও আবহাওয়ার বিরাট পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে ইউরোপ ও আমেরিকার বিজ্ঞানীরা বর্তমানে আরও অধিকতর গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ করবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে অস্ট্রিয়ায় করোনার সংক্রমণের বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। আজ রবিবার ছুটির দিনেও সংক্রমণ সাড়ে পাঁচশোর উপরে উঠায় করোনার নতুন প্রাদুর্ভাবের আশঙ্কা আরও বাড়িয়ে তুলছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৫৫৩ জন। তবে আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় কেহ মৃত্যুবরণ করেন নি। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১৫০ জন।

অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৮৬ জন, NÖ রাজ্যে ৭২ জন, Salzburg রাজ্যে ৬৬ জন, Steiermark রাজ্যে ৬০ জন, Tirol রাজ্যেও ৬০ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৩১ জন, Kärnten রাজ্যে ২০ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৮ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র অস্ট্রিয়ায় করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে ২৬,৭৭৪ ডোজ। এই পর্যন্ত মোট করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে ৯৯,৫৭,৫২৫ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিনের সম্পূর্ন ডোজ গ্রহণ করেছেন ৪৮ লাখ ২০ হাজার ৩৫৯ জন, যা অস্ট্রিয়ার মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৪,০৬ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৬৩,০৮২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,৭৫০ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৬,৪৬,১৪৩ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৬,১৮৯ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৪০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৪৬ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,604 total views,  2 views today