অস্ট্রিয়ায় করোনার দৈনিক সংক্রমণ গত এপ্রিল মাসের অবস্থায় ফিরে এসেছে

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে অস্ট্রিয়ার আইসিইউ রোগীর সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যাবে

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন আজ অস্ট্রিয়ায় করোনার সংক্রমণ গত এপ্রিল মাসের পর সর্বোচ্চ সংখ্যায় পৌঁছিয়াছে। এদিকে অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন, দেশের সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরা এক পরিসংখ্যানের পূর্বাভাসে জানিয়েছেন অস্ট্রিয়ায় সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ের পর হাসপাতালের আইসিইউ রোগীর সংখ্যা ২০০ শতের উপরে পৌছে যাবে।

সমগ্র অস্ট্রিয়ায় আইসিইউ বেড আছে প্রায় দুই হাজারের সামান্য উপরে। করোনার জন্য ৫০০ শত থেকে ৬০০ শত আইসিইউ বেড সংরক্ষিত রাখা হয়েছে। করোনার আইসিইউ রোগীর সংখ্যা বাড়লে স্বাভাবিক অপারেশন স্থগিত করা হয়ে থাকে। যেমনটি এই বছরের শুরুতেই শীতের মধ্যে করা হয়েছিল।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১,৮৪৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩ জন।গত এপ্রিল মাসের পর এই প্রথম করোনার দৈনিক সংক্রমণ প্রায় দুই হাজারের কাছাকাছি এসে গেছে।

অস্ট্রিয়ান সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরা ঠিক গত বছর এই সময়েই জানিয়েছিলেন যে,অস্ট্রিয়া করোনার দৈনিক সংক্রমণ তিন হাজারে পৌঁছে গেল লকডাউন দেয়া অবশ্যম্ভাবী হয়ে যাবে। সে সময়ে সংক্রমণ তিন হাজারের উপরে উঠায় ২ নভেম্বর থেকে লকডাউন লাইট দেয়া হয়েছিল।

পরে সংক্রমণ হ্রাস না পাওয়ায় সম্পূর্ণ লকডাউন দেয়া হয়েছিল আরও কয়েকবার। অবশ্য এই বছর লকডাউন না দিয়ে কিছু বিধিনিষেধ আরোপের মাধ্যমে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করা হবে বলে ঈন্গিত দিয়েছেন সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ। তিনি বলেছেন সংক্রমণ বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে প্রথমেই রাতে গ্যাস্ট্রোনমিতে ১-জি নিয়ম বাধ্যতামূলক করা হবে। অর্থাৎ করোনার টিকা ব্যতীত কেহ রাতের কোন রেস্টুরেন্ট, ক্লাব, ডিস্কো সহ যে কোন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। পরবর্তীতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসলে এই নিয়ম দিনের বেলায়ও সর্বত্র প্রয়োগ করে সংক্রমণের বিস্তার রোধ করার চেষ্টা করা হবে।

আজ রাজধানী ভিয়েনায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৬৫৩ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৩৫৯ জন,NÖ রাজ্যে ২৩০ জন, Steiermark রাজ্যে ১৫৮ জন,Tirol রাজ্যে ১৩০ জন, Salzburg রাজ্যে ১১৩ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৮৬ জন, Kärnten রাজ্যে ৮১ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৩৮ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র দেশে করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়া হয়েছে ১৫,৯১১ ডোজ এবং এই পর্যন্ত দেয়া হয়েছে ১,০৪,৫৬,৭৫৩ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন ৫২,০৬,০২৪ জন, যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৮,৩ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৯০,১৫৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৩ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৬,৬৩,৪৬১ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৫,৯১৭ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৪৫ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৫৪৫ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,584 total views,  1 views today