করোনায় অস্ট্রিয়ায় কোয়ালিশন সরকারের মধ্যে কোন মতবিরোধ নাই

আগামীকাল সরকারের সাথে বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের বৈঠকের পর মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে করোনার বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত


কবির আহমেদ,
ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ান সরকারের উপ প্রধানমন্ত্রী (ভাইস চ্যান্সেলর) ভার্নার কোগলার ( গ্রিনস) অস্ট্রিয়ান রাস্ট্রায়ত্ব টেলিভিশন ORF এর গ্রীষ্মকালীন এক গোল টেবিল আলোচনায় উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

অস্ট্রিয়ার কয়েকটি পত্রিকায় জানিয়েছিলেন যে,সম্ভবত করোনার নতুন সংক্রমণের বিস্তারে গ্রিনস পার্টির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের(ÖVP)বিধিনিষেধের ব্যাপারে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে।

ভাইস চ্যান্সেলর ভার্নার কোগলার বলেন,করোনা ইস্যুর ক্ষেত্রে ÖVP- এর সাথে তিনি কোন মতবিরোধ দেখেন না। “আমরা সম্পূর্ণরূপে একমত,” মঙ্গলবার গ্রিনস পার্টির প্রধান তা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ÖVP ও Greens পার্টি করোনা ব্যবস্থা সম্পর্কে একসঙ্গে হাটছে।  “আমরা সম্পূর্ণরূপে একমত”, ভাইস চ্যান্সেলর ভার্নার কোগলার (গ্রিনস) ওআরএফ গ্রীষ্মকালীন আলোচনায় চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ (ÖVP) কর্তৃক প্রদত্ত ঘোষণাকে নিশ্চিত করেছেন যে, যাদের টিকা দেওয়া হয়েছে তাদের জন্য কোন লকডাউন থাকবে না।  বুধবার সকালে গভর্নরদের সাথে ব্যবস্থাগুলির কংক্রিট প্যাকেজটি বেঁধে দেওয়া হবে এবং জনসাধারণকে সকাল ১০ টায় তা জানানো হবে।

কোগলার মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “অবশ্যই আমরা কেউ টিকা দেওয়া বা না নেওয়া ব্যবস্থাগুলিতে পার্থক্য করব।”  তিনি মনে করেন এটি “বুদ্ধিমান এবং সঠিক” কারণ আপনি বছরের পর বছর ধরে বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারেন না এবং করতে চান না। তিনি আরও জানান আমাদের লকডাউন প্রতিহত করার সুযোগ রয়েছে এবং “এটি টিকা”।  এটি “আলোকিত মানুষের মধ্যে স্পষ্ট”। কোগলার এও জানান যে কুর্জ (ÖVP) এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভল্ফগাং মুকস্টাইনের (গ্রিনস) মধ্যে করোনার ব্যাপারে কোন মতবিরোধ নাই। বরঞ্চ উভয়ের মতামতের উপর ভিত্তি করে করোনার বর্তমান সংক্রমণের বিস্তারের রোধে ব্যবস্থাগুলি মূলত প্রস্তুত এবং সূক্ষ্মভাবে সম্মানিত এবং আগামীকাল বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের সামনে তা উপস্থাপন করা হবে।

অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে, কুর্জ ঘোষণা করেছিলেন যে, ভবিষ্যতে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে বিছানা দখল ৭ দিনের ঘটনার পরিবর্তে করোনা ব্যবস্থাগুলির জন্য নতুন প্রধান সূচক হবে। এখানে আর সাধারণ লকডাউন হওয়া উচিত নয়, তবে প্রয়োজনে “সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা” কেবলমাত্র টিকা ছাড়া মানুষের জন্য।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১,৪৩৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৪৭৯ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৩৪৬ জন, NÖ রাজ্যে ২০৪ জন, Steiermark রাজ্যে ১৩৩ জন, Salzburg রাজ্যে ১০৭ জন, Tirol রাজ্যে ৮০ জন, Burgenland রাজ্যে ৭৭ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৫৪ জন এবং Kärnten রাজ্যে -৪২ জন(ডাটা ক্লিনিংয়ের জন্য মাইনাস)।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে আজ সমগ্র দেশে করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়া হয়েছে মাত্র ৬,৩৫৯ ডোজ এবং এই পর্যন্ত মোট ১,০৫,২৬,৯৫৪ ডোজ দেয়া হয়েছে। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৫২,৪৮,২৮৪ জন,যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৮,৮ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৯৮,৯৪৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,৮১২ জন।করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৬,৭০,৬০১ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৭,৫৩৫ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৭১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৬১৪ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,579 total views,  1 views today