সার্বিয়ার রাষ্ট্রপতির কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ

বাংলাদেশের সাথে বাণিজ্য এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ় করতে সার্বিয়ার আগ্রহ প্রকাশ

 মনিরুজ্জামান মনির,ইউরোপ ডেস্কঃ সার্বিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের অনিবাসি রাষ্ট্রদূত মোঃ শামীম আহসান ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ সোমবার বেলগ্রেডে প্যালেস অব সার্বিয়ায় রাষ্ট্রপতি অ্যালেক্সান্ডার ভুচিচ (Aleksandar Vucic)-এর কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেন।

ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে তার অধিক্ষেত্রাধীন (jurisdiction) দেশটির রাষ্ট্রপ্রধানের কাছে পরিচয়পত্র পেশের আগে এবং পরে একটি সুসজ্জিত সামরিক দল গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরিচয়পত্র পেশ করার পর রাষ্ট্রদূত আহসানকে সার্বিয়ার রাষ্ট্রপতির সাথে সংক্ষিপ্ত আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। রাষ্ট্রপতি ভুচিচ সার্বিয়ায় রাষ্ট্রদূত হিসেবে আহসানকে অভিনন্দন জানান।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সার্বিয়ার প্রেসিডেন্টের কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন। সার্বিয়ার রাষ্ট্রপতিও প্রত্যুত্তরে তাঁদের শুভেচ্ছা জানান।

রাষ্ট্রদূত আহসান দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান ঐতিহাসিক ও সৌহার্দ্যপূর্ণ ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বিশেষকরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রাক্তন যুগোস্লাভিয়ার রাষ্ট্রপতি  জোসিপ ব্রোজ টিটোর (Mr. Josip Broz Tito) মধ্যেকার ব্যক্তিগত বন্ধুত্বের কথা উল্লেখ করেন। তিনি কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন যে সার্বিয়া (সাবেক যুগোস্লাভিয়ার উত্তরসূরী দেশ) বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরপরই স্বীকৃতি দেওয়া দেশগুলির মধ্যে অন্যতম।

রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের অসাধারণ সাফল্যের কথা তুলে ধরেন। রাষ্ট্রদূত আহসান বলেন, দু’দেশের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক আরো জোরদার করার বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। সার্বিয়ার রাষ্ট্রপতি বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ব্যাপক অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং দুই দেশের মধ্যে শক্তিশালী বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদার করার ওপর বিশেষ জোর দেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির পক্ষে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালে তিনি তা সানন্দে গ্রহণ করেন।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে সার্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিকোলা সেলাকোভিচ (Mr. Nikola Selakovic) উপস্থিত ছিলেন। পরিচয়পত্র প্রদান অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের চব্বিশ জন অনাবাসী রাষ্ট্রদূত পরিচয়পত্র পেশ করেন। পরিচয়পত্র পেশ করার পর বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং সংস্কৃতি ও তথ্য মন্ত্রী মিজ মাজা গোজকোভিচ (Ms. Maja Gojkovic) এবং বাণিজ্য, পর্যটন ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মিজ তাতিয়ানা মাতিচ (Ms. Maja Gojkovic) তাদের কার্যালয়ে পৃথকভাবে সাক্ষাৎ করেন। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সার্বিয়ার সরকারের কয়েকজন মন্ত্রীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সাথে দেখা করবেন।

 14,589 total views,  1 views today