সমগ্র অস্ট্রিয়া করোনার ট্র্যাফিক লাইট সিস্টেমে কমলা জোনের পথে

অস্ট্রিয়ার করোনার ট্র্যাফিক লাইট কমিশন জানিয়েছে বর্তমানে সমগ্র অস্ট্রিয়া করোনার অতি ঝুঁকিপূর্ণ জোনে

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন অস্ট্রিয়ার করোনার ট্র্যাফিক লাইট কমিশন আজ বৃহস্পতিবার ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তাদের নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে সমগ্র অস্ট্রিয়াকে করোনার সংক্রমণের জন্য অতি ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল ঘোষণা করেছেন।

কমিশন আজ অস্ট্রিয়ার পূর্বাঞ্চলের রাজ্য বুর্গেনল্যান্ডকে হলুদ থেকে কমলা জোনে স্থানান্তরিত করেছেন। ফলে বর্তমানে অস্ট্রিয়ার ৫ টি রাজ্য এখন করোনার অতি ঝুঁকিপূর্ণ কমলা জোনে। ভিয়েনা,সালজবুর্গ,আপার অস্ট্রিয়া এবং ভোরার্লবার্গকে গত সপ্তাহেই করোনার কমলা জোন ঘোষণা করা হয়েছিল।

অস্ট্রিয়ার বাকী চার রাজ্য লোয়ার অস্ট্রিয়া,তিরল, কের্নটেন ও স্টায়ারমার্ক এই সপ্তাহে হলুদ জোনে থাকলেও সংক্রমণের বিস্তার যেভাবে বাড়ছে তাতে অচিরেই কমলা জোনে চলে আসতে পারে।

অস্ট্রিয়ার করোনা কমিশন জানিয়েছে কমলা জোনে থাকা ভোরার্লবার্গে করোনার সংক্রমণের বিস্তার কিছুটা স্থিতিশীল থাকলেও বাকী চার রাজ্যে অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে। বিশেষ করে রাজধানী রাজ্য ভিয়েনা এখন অস্ট্রিয়ার করোনার হট স্পট। ইইউর মেডিকেল এজেন্সির নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতি ১,০০,০০০ লাখ জনপদে ২৫ জনের বেশী মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলে হলুদ, ৫০ জনের উপরে হলে কমলা এবং ১০০ জনের উপর হলে লাল জোনে পড়বে বলে বলা হয়েছে।

ভিয়েনার একাধিক জেলা বর্তমানে লাল জোনে পড়লেও সমষ্টিগতভাবে ভিয়েনায় প্রতি একলাখ জনপদে করোনার সংক্রমণ এখনও একশতের সামান্য নীচে থাকায় ভিয়েনা এখনও করোনার ট্র্যাফিক লাইট সিস্টেমে কমলা জোনের থাকছে। ভিয়েনার স্বাস্থ্য প্রশাসন জানিয়েছেন ভিয়েনায় করোনার জন্য নির্ধারিত আইসিইউ বেডের প্রায় শতকরা ২২ শতাংশ ইতিমধ্যেই করোনার সংকটাপূর্ণ রোগীদের দ্বারা পূর্ণ হয়ে গেছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ২,৩৫৬ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭৭৮ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৪৫৮ জন, OÖ রাজ্যে ৪২৬ জন, Steiermark রাজ্যে ২১২ জন, Salzburg রাজ্যে ১৪৪ জন, Tirol রাজ্যে ১১৫ জন, Kärnten রাজ্যে ৮৯ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৮২ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৫২ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে আজ সমগ্র দেশে করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়া হয়েছে মাত্র ১৩,১৩৮ ডোজ এবং এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার মোট পরিমাণ ১,০৫,৫৬,৬২৪ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৫২ লাখ ৬৩ হাজার ৭৭৪ জন, যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৮,৯ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,০৩,৫৭২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,৮২২ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৬,৭৩,৪৫৫ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৯,২৯৫ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৮৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৬৬৪ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,601 total views,  1 views today