অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মুকস্টাইন করোনার বিধিনিষেধ আরও কঠোর করার কথা ভাবছেন

অস্ট্রিয়ায় করোনার জন্য নির্ধারিত আইসিইউ এর বেডের শতকরা ২৫ শতাংশ করোনার রোগীদের দ্বারা পূর্ণ হলে আরও কঠোর বিধিনিষেধ

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইন (ÖVP) করোনায় আরও কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন। তিনি দক্ষিণ অস্ট্রিয়ার জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা Kleine Zeitung এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে একথা জানান। তিনি জানান অস্ট্রিয়ায় যদি করোনার রোগীদের দ্বারা নিবিড় পরিচর্যা শয্যার (আইসিইউ) দখলের হার ২৫ শতাংশের উপরে উঠে যায়,তখন করোনার বিধিনিষেধ আরও কঠোর করে হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বর্তমানে অস্ট্রিয়ার করোনার হট স্পট রাজধানী ভিয়েনার সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.ভল্ফগাং মুকস্টাইন বলেন,ভিয়েনা রাজ্যে করোনার জন্য নির্ধারিত আইসিইউ বেডের শতকরা ২৫ শতাংশের উপরে চলে গেলে আরও কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করতে তিনি ভিয়েনার রাজ্য প্রশাসনের প্রতি আবেদন করেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী পত্রিকাটিকে আরও জানান,অস্ট্রিয়ায় সমগ্র গ্যাস্ট্রনমিতে যেমন হোটেল,রেস্টুরেন্ট ও ফাস্ট ফুডের দোকানে খুব শীঘ্রই ২-জি (2-G) নিয়ম কার্যকর করা হবে। ২-জি নিয়ম হল, এখন থেকে রেস্টুরেন্ট তারাই প্রবেশ করতে পারবে যাদের করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ নেয়া আছে অথবা যারা করোনার থেকে সুস্থতা লাভ করেছেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ২,৩৪১ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০ জন।রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭৪৬ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৪৭৩ জন,NÖ রাজ্যে ৪৪৭ জন, Steiermark রাজ্যে ২০৪ জন,Tirol রাজ্যে ১৭৫ জন, Salzburg  রাজ্যে ১৪১ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৬৬ জন,Burgenland রাজ্যে ৪৫ জন এবং Kärnten রাজ্যে ৪৪ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র অস্ট্রিয়ায় করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়া হয়েছে ১৪,৩৭০ ডোজ এবং এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়ার মোট পরিমাণ ১,০৫,৯২,৩৪৩ ডোজ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৫২ লাখ ৮০ হাজার ৯৪২ জন,যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৯,১ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,০৫,৯১৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,৮৮২ জন।করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৬,৭৫,০৬০ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২০,০২১ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৮৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৬৬৮ জন।বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,603 total views,  1 views today