ভিয়েনায় শত শত মানুষের করোনার টিকা ও বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

করোনার প্রতিষেধক টিকা আমাদের শরীরের জন্য ভালো নয় বলে জানিয়েছেন বিক্ষোভের উদ্যোক্তা মার্টিন রুটার

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর অপরাহ্নে ভিয়েনায় প্রায় ২,০০০ মানুষ করোনার টিকা ও নতুন বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। ভিয়েনার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানানো হয়েছে।

এপিএ এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে এই বিক্ষোভের অন্যতম উদ্যোক্তা মার্টিন রুটার (Martin Rutter) জানান, করোনার প্রতিষেধক টিকা মানুষের শরীরের জন্য ঠিক না,তাই আমরা টিকা গ্রহণের বিরোধিতা করছি এবং আমাদের দেশে নতুন করে করোনার বিধিনিষেধেরও বিরোধিতা করছি।

এখানে উল্লেখ্য যে, অস্ট্রিয়ার রক্ষণশীল দল ফ্রিডম পার্টি (FPÖ) অস্ট্রিয়ার করোনার টিকাদান, মাস্ক পড়া সহ করোনার সকল বিধিনিষেধের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। তারা করোনার কঠোর বিধিনিষেধের সময়ও সংসদে মাস্ক পড়ে নি। তাদের প্রায় ডজন খানেক সংসদ সদস্য এই পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এপিএ জানায়, করোনা বিরোধী বিক্ষোভের পদযাত্রা ভিয়েনার সেন্ট্রাল রেলস্টেশন থেকে শুরু হয়ে ভিয়েনার সিটি সেন্টারের কার্লসপ্লাসের (Karlsplatz)নিকট রাসেল পার্কে এসে আনুষ্ঠানিক বক্তব্যের মাধ্যমে শেষ হয়। ভিয়েনার পুলিশের মতে, শুরুতে প্রায় এক হাজার লোক ছিল। পরে রাসেল পার্কে লোক সংখ্যা প্রায় ২,০০০ হাজারেরও উপরে ছিল। বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীরা সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের(ÖVP) ব্যাঙ্গ প্রতিকৃতি হাতে নিয়েও শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

সংবাদ সংস্থার খবরে বলা হয়েছে এই করোনা বিরোধী বিক্ষোভে অংশগ্রহণের জন্য অস্ট্রিয়ার বিভিন্ন অনলাইন ফোরামে কয়েক দিন ধরে প্রচারণা চালানো হয়েছিল। এপিএ আরও জানিয়েছে বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীরা কেহই করোনার কোন সাধারণ সতর্কতাও মেনে চলে নি। তাদের হাতের প্লাকার্ডে এও লেখা ছিল “বল বা চাপ প্রয়োগ করে, টিকাদান আমরা মানি না”,”ভ্যাকসিনেট? নিশ্চয়ই না!”, “দুর্ভাগ্যবশত শুধুমাত্র সুস্থ”, “আমাদের বাচ্চাদের  করোনার টিকা থেকে দূরে রাখতে হবে”।

আজকের এই করোনার বিরোধী বিক্ষোভে বিক্ষোভকারীদের প্রধান শ্লোগান ছিল “কুর্জ  মাস্ট গো”। ভিয়েনার পুলিশ প্রশাসন বিক্ষোভ অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা ২,০০০ হাজারের উপরে বললেও ডেমো ইনিশিয়েটর মার্টিন রুটারের মতে প্রায় ৪,০০০ হাজার মানুষ এই করোনার টিকা ও বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ২,২৬০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৬৩২ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৪৭৯ জন, NÖ রাজ্যে ৪২১ জন, Steiermark রাজ্যে ২২৯ জন, Salzburg রাজ্যে ১৭০ জন, Kärnten রাজ্যে ১০৩ জন, Tirol রাজ্যে ১০১ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৯৬ জন এবং Burgenland রাজ্যে ২৯ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে আজ করোনার প্রতিষেধক টিকা দেয়া হয়েছে ১৬,৭৪০ ডোজ এবং এই পর্যন্ত মোট টিকাদানের পরিমাণ ১,০৬,০৯,৯৯০ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৫২ লাখ ৯০ হাজার ৪৫৫ জন,যা মোট জনসংখ্যার শতকরা ৫৯,২ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,০৮,১৭৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,৮৩৭ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৬,৭৬,৪৩৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২০,৯০০ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১৭৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৬৯০ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 14,619 total views,  1 views today