বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ৩ শতাংশের বেশি বেড়েছে

চলতি সপ্তাহে জ্বালানি তেলের দামে প্রবৃদ্ধির পরিমাণ ৩ শতাংশের বেশি দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স

 কবির আহমেদ, আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ আজ সোমবার ১৮ অক্টোবর লন্ডন ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে বিশ্ববাজারে আবারও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে জ্বালানি তেলের দাম ৩ শতাংশের উপরে বেড়েছে। কয়েক মাস ধরে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের বৈশ্বিক চাহিদা বৃদ্ধির বিপরীতে সরবরাহ ঘাটতি চলছে।

রয়টার্স জানায়, সোমবার সকালে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুড অয়েলের দাম ১ শতাংশ বা ৮৭ সেন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫ দশমিক ৭৩ ডলার, যা ২০১৮ সালের অক্টোবরের পর থেকে সর্বোচ্চ।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) দাম ব্যারেলপ্রতি ১ দশমিক ৪ শতাংশ বা ১ দশমিক ১২ ডলার বেড়ে হয়েছে ৮৩ দশমিক ৪০ ডলার। ২০১৪ সালের অক্টোবরের পর থেকে মার্কিন তেলের সর্বোচ্চ দাম এটাই।

 ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি বৃহস্পতিবার জানায়, জ্বালানি সংকটের ফলে বিশ্বব্যাপী প্রতিদিন জ্বালানি তেলের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়ে ৫ লাখ ব্যারেলে পৌঁছতে পারে। তবে এ পরিস্থিতিতে চলতি বছরের শেষ নাগাদ জ্বালানি তেলের দৈনিক চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ৭ লাখ ব্যারেল।

করোনা কেটে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার শুরু হওয়ায় বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়ার প্রবণতা দেখা যায় গত বছরের নভেম্বর থেকেই। তবে চলতি বছরের জুন থেকে দাম বাড়ার প্রবণতায় নতুন হাওয়া লাগে।

রয়টার্স আরও জানান বর্তমান সংকট মোকাবেলায় জ্বালানি তেলের মজুদ বৃদ্ধির প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া।রাশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী আলেক্সান্ডার নোভাক জানান, প্রয়োজন হলে অতিরিক্ত তেল উত্তোলন করার সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার। এ সময় তিনি জানান, দেশটি প্রতিদিন ১ কোটি ১৩ লাখ থেকে ১ কোটি ১৪ লাখ ব্যারেল পর্যন্ত তেল উত্তোলন করে থাকে।

 আন্তর্জাতিক তেল উৎপাদনকারী দেশ সমূহের সংস্থা ওপেকের (OPEC) চুক্তি অনুযায়ী অক্টোবরে প্রতিদিন ৯৮ লাখ ৯ হাজার ব্যারেল ও নভেম্বরে ৯৯ লাখ ১৩ হাজার ব্যারেল অপরিশোধিত তেল উত্তোলনের কথা রয়েছে রাশিয়ার। তবে প্রতিদিনই কোটার অতিরিক্ত তেল উত্তোলন করে থাকে রাশিয়া।

নোভাক জানান, আমাদের প্রচুর সম্পদ রয়েছে। প্রচলিত জ্বালানি তেলের পাশাপাশি পাথরে মজুদ থাকা তেলও রয়েছে আমাদের হাতে। যদি অতিরিক্ত জ্বালানির প্রয়োজন হয় তাহলে আমরা প্রয়োজনীয় মজুদ বাড়াতে সক্ষম।

 14,630 total views,  1 views today