অস্ট্রিয়ায় আগামী বছর এপ্রিলে মধ্যবর্তী সাধারণ নির্বাচনের দাবী করেছেন বিরোধী নেত্রী পামেলা

বিরোধীদল সোস্যালিস্ট পার্টি অস্ট্রিয়ার প্রধান পামেলা বলেন,ক্ষমতাসীন অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে তারা গত ৫২ দিনে আমাদের ৩ জন সরকার প্রধান দিয়েছে কোন নির্বাচন ছাড়াই।

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধীদল অস্ট্রিয়ান সোস্যালিস্ট পার্টির(SPÖ) চেয়ারপার্সন ডা. পামেলা রেন্ডি-ভাগনার আজ রাজধানী ভিয়েনায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা বলেন। পামেলা তার বক্তব্যে অত্যন্ত সুস্পষ্ট ভাষায় বলেন,অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টির (ÖVP) দেশ পরিচালনায় বর্তমানে সম্পূর্ণ ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে।

সাবেক সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের সময়েই আমি বলে ছিলাম বর্তমানে ক্ষমতাসীন দলটি দুর্নীতি ও আভ্যন্তরীণ কোন্দলে জর্জরিত হয়ে পড়েছে।তাই তিনি তাদের উপর দেশ পরিচালনার গুরু দায়িত্ব সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করছেন।

বিরোধী নেত্রী আরও বলেন, আমাদের দেশে বর্তমানে করোনার চতুর্থ প্রাদুর্ভাব এবং লকডাউন চলছে। করোনা চতুর্থ প্রাদুর্ভাব শুরুর পূর্বেও তারা আমাদের সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অগ্রাহ্য করেছেন।

তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি সাপেক্ষে আগামী বছর এপ্রিল মাসে দেশে একটি মধ্যবর্তী সাধারণ নির্বাচন দেয়া যেতে পারে।তিনি আরও বলেন,নতুন চ্যান্সেলর কার্ল নেহামারের প্রতি নতুন নির্বাচনের জন্য আমরা সংসদের বিরোধীরা জোড়ালো আবেদন জানাবো।বর্তমান সরকারের মেয়াদ আছে ২০২৪ সাল পর্যন্ত।

এদিকে আজ শনিবার অস্ট্রিয়ার ডানপন্থি বিরোধীদল অস্ট্রিয়ান ফ্রিডম পার্টির (FPÖ) ডাকে রাজধানী ভিয়েনায় ৪০,০০০ হাজারেরও বেশী মানুষ করোনার প্রতিষেধক টিকা,লকডাউন ও বিভিন্ন বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।ফলে আজ বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ পর্যন্ত রাজধানীর ভিয়েনার প্রাণকেন্দ্রের ট্রাফিক ব্যবস্থা ভেঙ্গে  পড়ে।ফলে সমস্ত রাজধানীতে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হয়।

বিক্ষোভকারীরা কোথাও কোথাও পুলিশের সাথে সংঘর্ষেও জড়িয়ে পড়ে। ভিয়েনা পুলিশ প্রশাসন জানিয়েছেন  আজকের এই বিক্ষোভ সমাবেশে ১,২০০ শত দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।পুলিশ প্রায় ডজন খানেক বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করেছে এবং রাস্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস ও পুলিশের উপর আক্রমণের জন্য ২৭ টি ফৌজধারী মামলা দায়ের করেছেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭,৩০৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৬০ জন।রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭৭৮ জন।

অন্যান্য ফেডারেল রাজ্যের মধ্যে Steiermark রাজ্যে ১,৪০০ জন, NÖ রাজ্যে ১,২৫৫ জন, OÖ রাজ্যে ১,২২৪ জন, Tirol রাজ্যে ৮১২ জন, Kärnten রাজ্যে ৫৮১ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৫৪০ জন, Salzburg রাজ্যে ৫২৬ জন এবং Burgenland রাজ্যে ১৮৮ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র অস্ট্রিয়াতে করোনার প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ১২,৯৩৫ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৬০,২৬,৭৪৯ জন,যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬৮,৬ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১,৯৩,২৮৬ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১২,৭৫৩ জন।করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ১০,৬৩,৪৮৪ জন।বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,১৭,০৪৯ জন।এর মধ্যে আইসিইউত আছেন ৬৪৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৩,১৬৩ জন।বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 14,713 total views,  1 views today