অস্ট্রিয়ার দক্ষিণের রাজ্য Kärnten এ ভারী তুষারপাতের ফলে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে

রাস্তাঘাট বন্ধ, রেল সহ অন্যান্য গণপরিবহনে বিলম্ব এবং হাজারের উপরে বাড়ি বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে।

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার আবহাওয়া অফিসের উদ্ধৃতি দিয়ে জাতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন, ভারী তুষারপাতের ফলে অস্ট্রিয়ার সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে।অস্ট্রিয়ার জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা Kronen Zeitung জানিয়েছে অস্ট্রিয়ার দক্ষিণের রাজ্য Kärnten এ ভারী তুষারপাতের ফলে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানের রাস্তায় গাড়ি পিছলিয়ে একাধিক দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে।তবে কোন মৃত্যুর ঘটনা না ঘটলেও ডজন খানেক মানুষ আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

ক্যারিন্থিয়ান(Kärnten)তুষারপাত পরিষেবা আল্পস পর্বতমালার বিভিন্ন স্থানে লাভিনে বা পাহাড় থেকে তুষার ধসের সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছেন।রাজ্যের সকল জরুরী পরিষেবা ইউনিটকে (Rescue) প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা জারি করেছেন। আবহাওয়াবিদরা এই রাজ্যে শুধুমাত্র আজ রবিবার ৩০ সেন্টিমিটার নতুন তুষারপাত রেকর্ড করার কথা জানিয়েছেন।

রাজ্য সরকারের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন, রাজ্যের কয়েকটি জেলায় ভারী তুষারপাতের সময় বারবার ব্ল্যাকআউট বা বিদ্যুত বিভ্রাটের ঘটনা ঘটছে। উদাহরণস্বরূপ লাভানটাল (ওল্ফসবার্গ জেলা), গোর্টশিটজটাল এবং গুর্কটালে (সেন্ট ভেইট আন ডার গ্লান জেলা) প্রায় ১,৩০০ শতাধিক বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।ভারী তুষারপাতের সাথে ধমকা হাওয়ার ফলে পাহাড়ের বিভিন্ন স্থানে গাছ উপড়ে বিদ্যুতের তারে পড়লে তার ছিঁড়ে গেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। রাজ্যের বিদ্যুত বিভাগ চেষ্টা করছে দ্রুত বিদ্যুতের সংযোগ পুনরায় চালু করার।

এদিকে রাজ্যের যোগাযোগ প্রশাসন থেকে এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে ভারী তুষারপাতের জন্য রাস্তায় গাড়ি বের করার পূর্বে গাড়ির চাকায় শিকল লাগানো সকলের জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় করোনার নতুন সংক্রমণ গত সপ্তাহের তুলনায় অর্ধেকের নীচে নেমে এসেছে।তবে করোনায় মৃত্যু ও হাসপাতালের উপর চাপ অব্যাহত রয়েছে। আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৫,১৯২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৩ জন।রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭৭৬ জন।

অন্যান্য ফেডারেল রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৮৮৬ জন, OÖ রাজ্যে ৮৫০ জন, Steiermark রাজ্যে ৮৩৪ জন, Tirol রাজ্যে ৫৫৭ জন, Kärnten রাজ্যে ৪৬৭ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৩৭৫ জন, Salzburg রাজ্যে ৩৪৭ জন এবং Burgenland রাজ্যে ১০১ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র দেশে করোনার প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ১০,৩৯৯ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৬০,৩৯,৯৯২ জন,যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬৭,৬ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১,৯৮,৪৭৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১২,৭৯৬ জন।করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ১০,৭৫,৪৮২ জন। বর্তমানে অস্ট্রিয়ায় করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,১০,২০০ জন।এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৬৫১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৩,০২৯ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 14,724 total views,  1 views today