নয়জন নতুন মন্ত্রী সহ শপথ নিলেন অস্ট্রিয়ার নতুন সরকার প্রধান চ্যান্সেলর কার্ল নেহামার

কয়েকদিনের নানান নাটকীয়তার পর সরকার প্রধান হিসাবে চ্যান্সেলর কার্ল নেহামার শপথ। আগামী বুধবার করোনার লকডাউনের ভবিষ্যত নিয়ে নতুন চ্যান্সেলর নেতৃত্বে মন্ত্রী পরিষদের প্রথম বৈঠক।

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ আজ অস্ট্রিয়ার রাষ্ট্রপতি ভবন হোফবুর্গে অস্ট্রিয়ার ফেডারেল রাস্ট্রপতি আলেকজান্ডার ফান ডার বেলেন দেশের নতুন সরকার প্রধান হিসাবে সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামারকে(ÖVP) সরকার প্রধান চ্যান্সেলর হিসাবে শপথ পাঠ করান এবং নিয়োগ পত্রে স্বাক্ষর করেন। সরকার প্রধানের পর নয়জন নতুন মন্ত্রীও শপথ পাঠ করেন।

শপথ পাঠ অনুষ্ঠানে অস্ট্রিয়ার ফেডারেল রাস্ট্রপতি আলেকজান্ডার ফান ডার বেলেন এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, আমরা বর্তমানে মহামারীর চতুর্থ প্রাদুর্ভাবে অত্যন্ত নাজুক অবস্থার মধ্য দিয়ে পথ অতিক্রম করছি।তাই তিনি নতুন সরকার প্রধান সহ অন্যান্য মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন,আপনাদের এখন দেশের জনগণের কষ্ট লাগবের জন্য অতিক্রম দ্রুত কাজ করতে হবে।

অস্ট্রিয়ার দৈনিক Kronen Zeitung জানিয়েছেন, আজ সোমবার ফেডারেল রাস্ট্রপতি আলেকজান্ডার ভ্যান ডার বেলেন নতুন ফেডারেল চ্যান্সেলর কার্ল নেহামার (ÖVP) ও ÖVP দলের অন্যান্য মন্ত্রীদের শপথ নেন। যেটি সাবেক চ্যান্সেলর ও ÖVP দলের প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জের রাজনীতি থেকে নিজেকে প্রত্যাহারের পর পুনর্গঠিত হয়েছিল।তিনি তাদের করোনা সংকটের জন্য একটি অ্যাসাইনমেন্ট দিয়েছেন: সরকারকে অবশ্যই “জনসংখ্যার জন্য খাঁটি ওয়াইন ঢালতে হবে”, সত্য-ভিত্তিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে এবং স্বচ্ছ, যৌথ যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের সম্পর্কে তাদের জানাতে হবে।

রাস্ট্রপতি ফান ডার বেলেন সতর্ক করে বলেন যে, সরকারকে অবশ্যই মহামারী এবং এর সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং মানবিক পরিণতিগুলিকে “অবিলম্বে এবং একসাথে” মোকাবেলা করার “মহান কাজ” মোকাবেলা করতে হবে।এই মহামারীতে, আপনি পরবর্তীতে কী করবেন তা জানেন না, তিনি নতুন ওমিক্রোন ভেরিয়েন্টের উল্লেখ করেছেন।  এই কারণেই একজনের উচিত “মিথ্যা প্রত্যাশা জাগানো এবং এমন কিছুর প্রতিশ্রুতি দেওয়া উচিত নয় যা পরে অর্জনযোগ্য নয়”।

যারা শপথ নিয়েছেন, চ্যান্সেলর নেহামারের পর, বিভাগের নতুন প্রধানরাও শপথ নিয়েছেন।যারা শপথ নিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন, লোয়ার অস্ট্রিয়া (স্বরাষ্ট্র) থেকে গেরহার্ড কার্নার, পূর্ববর্তী স্টেট সেক্রেটারি ম্যাগনাস ব্রুনার (অর্থ) এবং স্টায়ারিয়ান ইউনিভার্সিটির রেক্টর মার্টিন পোলাশেক (শিক্ষা)।শপথ অনুষ্ঠানে নতুন মন্ত্রীদের স্ত্রীরাও উপস্থিত ছিলেন।

সদ্য পদত্যাগকারী সাবেক চ্যান্সেলর আলেকজান্ডার শ্যালেনবার্গ (ÖVP) পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে আবার শপথ নিয়েছেন।নতুন স্টেট সেক্রেটারি হিসাবে  ক্লাউডিয়া প্লাকলম যিনি দলের যুব দলের প্রধান ছিলেন।তাকে পরিবার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বও দেয়া হয়েছে।

ফান ডার বেলেন বিদায়ী ÖVP সরকারী সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন যেমন:  গেরনট ব্লুমেল, হাইঞ্জ ফাসম্যান এবং মিখাইল লিনহার্ট।শপথের পর শ্যালেনবার্গ ফেডারেল চ্যান্সেলরের অফিস নেহামারের কাছে হস্তান্তর করেন।আর নেহামার নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্নারের কাছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হস্তান্তর করেন।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৪,৬২৫ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৮ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৬০৬ জন।

অন্যান্য ফেডারেল রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৮৫৭ জন, NÖ রাজ্যে ৭৭৬ জন, Steiermark রাজ্যে ৫৬৬ জন, Kärnten রাজ্যে ৫০৫ জন,Tirol রাজ্যে ৪৫৯ জন, Salzburg রাজ্যে ৪৩৬ জন, Vorarlberg রাজ্যে ২৯১ জন এবং Burgenland রাজ্যে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র অস্ট্রিয়াতে করোনার প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ৩,৭৫৭ জন। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার প্রতিষেধক টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৬০,২০,৫০৫ জন,যা দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬৭,৪ শতাংশ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২,০৩,১০৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১২,৮৪৪ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ১০,৮৭,১৩৩ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,০৩,১২৬ জন।এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৬৬১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪,১০৭ জন।বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 14,717 total views,  1 views today