লুৎফুর রহমান পূর্ব লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র নির্বাচিত

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ লুৎফুর রহমান পূর্ব লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র পদে নির্বাচিত হয়েছেন

 কবির আহমেদ, ইউরোপ ডেস্কঃ তৃতীয়বারের মতো লন্ডনের ‘টাওয়ার হ্যামলেটস’ এর মেয়র নির্বাচিত হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লুৎফুর রহমান। গত শুক্রবার (৬ মে) সন্ধ্যায় তাকে নতুন মেয়র ঘোষণা করা হয়। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের London Borough of Tower Hamlets কাউন্সিলে ৫ মে বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন লুৎফুর রহমান। আগামী চার বছর তার হাতে থাকবে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নতুন টাউন হলের দায়িত্ব।

প্রথম গননার ফলাফলে এগিয়ে ছিলেন লুৎফুর রহমান। তিনি মোট ভোট পেয়েছেন ৩৯,৫৩৩ । লেবার দলীয় জন বিগস পেয়েছেন ২৭,৮৯৪। লুৎফুর আর জন বিগসের ব্যবধান ১১ হাজার ৬৩৯ ভোটের। অন্যদিকে রাবিনা খান পেয়েছেন ৬,৪৩০ ভোট। দ্বিতীয় ভোট গননায়ও লুৎফুর রহমান এগিয়ে। সেখানে মোট ভোটের হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন বহুল আলোচিত টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের জনতার আপনজন লুৎফুর রহমান।

নির্বাচনী নিয়মানুযায়ী ভোট গণনার প্রথম রাউন্ডে লেবার দলের প্রার্থী জন রবার্ট বিগস ভোট পেয়েছেন ২৭,৮৯৪। এস্পায়ার দলের প্রধান লুৎফুর রহমানের ভোটের সংখ্যা হয় ৩৯,৫৩৩ । দ্বিতীয় রাউন্ডের ভোট গণনা শেষে লুৎফুর রহমান মোট পেয়েছেন ৪০,৮০৪ ভোট এবং প্রতিদ্বন্দ্বী লেবারদলের প্রার্থী জন বিগস এর ভোট সংখ্যা দাঁড়ায় ৩৩৪৮৭।

মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, “টাওয়ার হ্যামলেটসের পরবর্তী মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হতে পেরে আমি সম্মানিত। আপনার সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। আসুন আমরা আমাদের শিশুদের ভবিষ্যৎ পুর্নির্মাণে সবাই একসাথে কাজ শুরু করি।” নব নির্বাচিত মেয়র লুৎফুর রহমান, তাদের গণতন্ত্রে যারা অংশ নিতে এসেছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে বৃটেনের দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকা জানায়, সরকারি কার্যালয়ের কোন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে, পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হলে, লুৎফুর রহমান তার অ্যাসপায়ার পার্টির ব্যানারে বর্তমান মেয়র লেবার পার্টির জন বিগসকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়েছেন।

২০১৫ সালে, ভোট কারচুপি, ভোট কেনা ও ধর্মীয় ভীতি প্রদর্শনের জন্য, একটি বিশেষ আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করার পর, তাকে পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। তবে, পুলিশ ও ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিস সিদ্ধান্ত নেয় যে, ফৌজদারি বিচার শুরু করার জন্য পর্যাপ্ত প্রমাণ নেই।

টাওয়ার হ্যামলেট্‌স কি ?

লন্ডন বারো অভ টাওয়ার হ্যামলেট্‌স (London Borough of Tower Hamlets) যুক্তরাজ্য ও ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনের ৩২টি বারোর (Borough) একটি। এটি ঐতিহাসিক সিটি অভ লন্ডনের ঠিক পূর্বপাশে টেমস নদীর উত্তর তীরে অবস্থিত একটি অঞ্চল।

এখানে লন্ডনের ডকল্যাণ্ডস অঞ্চলটি অবস্থিত, যার মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিয়া ডক্‌স এবং ক্যানারি হোয়ার্ফ পড়েছে। বারোটির দক্ষিণাংশের আইল অফ ডগ্‌জ্‌-এ লন্ডনের সবচেয়ে উঁচু ভবনগুলির মধ্যে অনেকগুলি অবস্থিত। লন্ডনের যে ৫টি বারোতে ২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হয়েছিল, তাদের মধ্যে টাওয়ার হ্যামলেট্‌স একটি।

যুক্তরাজ্যের ২০০১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এই বারোতে প্রায় ১,৯৬,১০৬ জন লোকের বাস। ব্রিটেনের বারোগুলির মধ্যে যেগুলিতে সবচেয়ে কমসংখ্যক খাঁটি ব্রিটিশ অধিবাসী বাস করে, তাদের মধ্যে টাওয়ার হ্যামলেট্‌স অন্যতম। এখানকার প্রায় ৪৩% লোক শ্বেতাঙ্গ ব্রিটিশ এবং প্রায় ৩৩% লোক বাংলাদেশ থেকে আগত অভিবাসী বা বাংলাদেশী ব্রিটিশ নাগরিক। প্রায় ৭% লোক কৃষ্ণাঙ্গ, মূলত সোমালীয়।

আদমশুমারি অনুযায়ী এখানে ৬৫,৫৫৩ জন বাংলাদেশীর বাস। এদের মধ্যে যৌথ পরিবারে থাকার প্রবণতা বেশী। ১৮ বছরের নিচে অপ্রাপ্তবয়স্ক বাংলাদেশীর সংখ্যাও লন্ডনের গড়ের প্রায় দ্বিগুণ (এখানকার প্রায় ৪৯% বাংলাদেশীর বয়স ১৯ বা তার নিচে)। বেশির ভাগ বাংলাদেশী ছেলেমেয়ে যুক্তরাজ্যে এবং বেশির ভাগ প্রাপ্তবয়স্ক বাংলাদেশী বাংলাদেশে জন্ম নিয়েছে।

 15,804 total views,  1 views today