মহাকাশে দ্বিতীয় পৃথিবী খুঁজে পেয়েছে নাসা

অন লাইন ডেস্ক থেকে, কবির আহমেদঃ কয়েক বৎসর পূর্বে অস্ট্রেলিয়া বিজ্ঞানীরাও পৃথিবীর সদৃশ একটি গ্রহের আবিষ্কারের কথা জানিয়েছেন। পবিত্র আল কোরআনে আল্লাহ্তায়ালা সাত আকাশ ও সাত পৃথিবী সৃষ্টির কথা বলেছেন- “আল্লাহ সপ্তাকাশ সৃষ্টি করেছেন এবং পৃথিবীও সেই পরিমাণে, এসবের মধ্যে তাঁর আদেশ অবতীর্ণ হয়, যাতে তোমরা জানতে পার যে, আল্লাহ সর্বশক্তিমান এবং সবকিছু তাঁর গোচরীভূত।” [সূরা আত তালাক,আয়াতঃ ১২]

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা পৃথিবীর সদৃশ একটি গ্রহের সন্ধান পেয়েছে বলে জানিয়েছে। নাসার বিজ্ঞানীরা একে পৃথিবীর ‘যমজ বোন’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। কেপলার স্পেস টেলিস্কোপ-এর মাধ্যমে এই নতুন পৃথিবী সন্ধান পেয়েছে নাসা যা আমাদের পৃথিবী থেকে প্রায় ৩০০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। পৃথিবীতে যতটা সূর্যের আলো এসে পৌঁছায় তার ৭৫ শতাংশ যায় এই নতুন গ্রহে। পৃথিবী থেকে ১.০৬ গুণ বড় এই গ্রহ ।                                            

এর আগেও এই নতুন গ্রহের ছবি হাতে পেয়েছিল নাসা। কিন্তু সেবার এই গ্রহের উপস্থিতি সম্পর্কে তারা নিশ্চিত হতে পারেনি। মহাকাশবিজ্ঞানীরা মনে করছেন, পৃথিবীর মতোই তাপমাত্রা হবে নতুন এই গ্রহের। ওই গ্রহে প্রাণের সন্ধান মিলতে পারে বলেও মনে করছেন তারা। নাসায় ইন্টার্নশিপ করতে আসা ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থী উলফ কুকিয়ার এই গ্রহের সন্ধান পেয়েছিল। কুকিয়ার দাবি করেছিল, দুটি গ্রহ সূর্যকে কেন্দ্র করে ঘুরছে। সে নাসার ট্রানজিটিং এক্সোপ্লানেট সার্ভে স্যাটেলাইট (টিইএসএস) মিশনে ইন্টার্ন হিসাবে যোগ দিয়েছিল।                                                                                                                                            তথ্য ও উপাত্তঃ দি সান ইউ কে

 5,322 total views,  1 views today