অস্ট্রিয়ায় প্রাথমিক এবং নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় সমূহ ১৮ ই মে থেকে খুলে দেওয়া হবে- শিক্ষামন্ত্রী

অন লাইন ডেস্ক থেকে কবির আহমেদঃ আজ ভিয়েনায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী হাইঞ্জ ফাসমান সাধারণ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পুনরায় ক্লাশে ফিরে আসার পরিকল্পনা উপস্থাপন করছিলেন। ক্লাসে পুনরায় শুরু করার ব্যাপারে আমরা অত্যন্ত সতর্কতার সাথে এগুতে হচ্ছে। তিনি বলেন শরত্কালে করোনার দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবের পূর্বাভাস সম্পর্কেও আমাদের একটি উদ্বেগ রয়েছে।                                                      

তিনি আরও জানান এই বৎসর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। ক্লাশের ভিতর কোন শিক্ষাথীদের মাস্ক পড়তে হবে না। সরকারের করোনার লক ডাউন থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার চেষ্টায় বিভিন্ন দোকান সমূহ,ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ও কিন্ডারগার্টেন খুলে দেওয়ার ধারাবাহিকতায় বর্তমানে প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রায় ১৩,০০০ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে বর্তমানে প্রাথমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা শতকরা ১.৯ ভাগ। আমাদের শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রথম ধাপে আগামী ৪ই মে থেকে উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় – যা উচ্চ বিদ্যালয়ের স্নাতক, বাণিজ্যিক স্কুল, পর্যটন স্কুল, প্রযুক্তি স্কুল এবং শিক্ষানবিশদের জন্য প্রতিষ্ঠান সমূহ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।                                  

১৮ ই মে থেকে দ্বিতীয় পর্যায়ে, ছয় থেকে চৌদ্দ বছরের বয়ষ্ক বাচ্চাদের প্রাথমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক – স্কুল, নিম্ন মাধ্যমিক স্তরের পাশাপাশি বিশেষ স্কুল এবং জার্মান শিক্ষা ক্লাস খুলে দেওয়া হবে। ৩ জুন থেকে পলিটেকনিক এবং বৃত্তিমূলক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তারা তাদের ক্লাসে ফিরে যেতে পারবে। শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিতকরণের আশ্বাস দিয়েছেন।  মন্ত্রী আবারও হাত ধোয়ার প্রয়োজনীয়তা, প্রয়োজনীয় দূরত্ব এবং নাক এবং গলা সুরক্ষার উপর জোর দিয়েছেন। বিশেষত বিদ্যালয়ের পথে, করিডোর অঞ্চলে এবং বিরতির সময় হাত ধোয়ার উপর গুরুত্ব

 4,168 total views,  2 views today