৬ মাসের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের আকাশে পাকিস্তানের PIA এর প্রবেশ নিষিদ্ধ!

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স (PIA) কমপক্ষে আগামী ৬ মাস ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রবেশ করতে পারবে না। সম্প্রতি পাকিস্তান সরকার জানতে পেরেছে যে তাঁর রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ-এর এক তৃতীয়াংশ পাইলট জাল বা নকল সার্টিফিকেট বহন করে আসছে। গত ২২ মে পাকিস্তানের দক্ষিণের বন্দর নগরী করাচির একটি আবাসিক এলাকায় একটি আভ্যন্তরীণ রুটের বিমান বিধ্বস্ত হলে ৯৭ জন নিহত হন। এই দুর্ঘটনার পর পাইলটের গাফিলতি প্রমাণিত হলে সরকারের তদন্ত কমিটি ৮৬০ জন পাইলটের মধ্যে ২৬০ জনের নকল সার্টিফিকেট দিয়ে কাজে যোগদানের তথ্য উদঘাটন করেন।

পাকিস্তান সরকার সকল জাল সার্টিফিকেট বহনকারী বৈমানিকদের বরখাস্ত করে একটি বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এভিয়েশন সেফটি এজেন্সি (EASA) মঙ্গলবার এক প্রেস নোটে জানান যে,

পাকিস্তানের বিমানমন্ত্রী তার দেশের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা PIA এর এক তৃতীয়াংশ বৈমানিক জাল সার্টিফিকেট বহন করার চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশের পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই সিদ্ধান্ত নেন।

পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র আবদুল্লাহ হাফিজ জানান যে, করোন ভাইরাসের মহামারীর কারণে পিআইএ তার ইউরোপের ফ্লাইট এখনও শুরু করে নি। তবে,তিনি বলেন বিমান সংস্থা আগামী দুই মাসের মধ্যে ওসলো,কোপেনহেগেন, প্যারিস, বার্সেলোনা এবং মিলানে তার ফ্লাইট পুনরায় চালু করার আশা করেছিলো। এই কেলেঙ্কারী সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, “এটি আমাদের জন্য খুবই কলঙ্কজনক একটি ঘটনা।”

পাকিস্তান সরকার পিআইএ-এর চারজন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এভিয়েশন সেফটি এজেন্সি জানিয়েছেন যে, নিষেধাজ্ঞার নির্দেশটি একটি চিঠির মাধ্যমে পাকিস্তান সরকারকে অবহিত করা হয়েছে।

 6,078 total views,  1 views today