অস্ট্রিয়ায় করোনার আক্রান্তের সংখ্যা অব্যাহত বৃদ্ধিতে উদ্বিগ্ন সরকার! আসছে জোন ভিত্তিক বিধিনিষেধ!

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমণের সংখ্যা অব্যাহত বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার এলাকা ভিত্তিক লক ডাউন এবং বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

অস্ট্রিয়ার সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরা আগামী শরতের পূর্বে সরকারকে করোনার দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবের জন্য ভালোভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। গত চারদিন যাবত অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা তিন অংকের ঘরে উঠে এসেছে ফলে সরকার এখন কিছুটা নড়েচড়ে বসেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনসকোবার (গ্রীন পার্টি) আজ শনিবার করোনার পুনরায় সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন,আমরা প্রাথমিকভাবে এলাকা ভিত্তিক কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করছি যাতে রোগটি বেশী ছড়াতে না পারে।

এই এলাকা ভিত্তিক বিধিনিষেধ সেপ্টেম্বর মাসের পূর্বেই সম্পূর্ণ করতে হবে নতুবা সেপ্টেম্বরের পরে পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে বলে তিনি জানান। আমরা এখন অস্ট্রিয়াকে বিভিন্ন জোনে বিভক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যেমন সবচেয়ে বেশী সংক্রমিত এলাকাকে লাল জোন,তারপর ক্রমান্বয়ে কমলা,হলুদ ও সবুজ রংয়ের জোন।

তিনি আরও বলেন আমরা দেশের সার্বিক পরিস্থিতির উপর তীক্ষ্ম নজর রাখছি। স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা বর্তমানে করোনার উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিভিন্ন বিকল্পগুলি ব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করছেন।                                         

তিনি উদাহরণ স্বরূপ বলেন সুইজারল্যান্ডের সীমান্তবর্তী প্রদেশ Voralberg এর গভর্নর মার্কাস ওয়ালনার গত মংগলবার সে প্রদেশে করোনার সম্ভাব্য দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাবের প্রস্তুতির রূপরেখা ঘোষণা করেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন আমাদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় বর্তমানে করোনার চতুর্থ ধাপের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে যার অর্থ দাঁড়ায় সেপ্টেম্বর মাসে দ্বিতীয় তরঙ্গের ঝুঁকির প্রস্তুতি।

তিনি আরও যোগ করে বলেন পূর্বের মতোই লোকজন যদি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলে এবং অন্যান্য যাবতীয় নিয়মাবলী মেনে চলেন তাহলে রোগটি আমাদের মাঝে বেশী ছড়াতে পারবে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আমাদের জনগণ খুবই সচেতন তাই আশা করছি সকলেই নিজে নিজের সুরক্ষা নিশ্চিত করে চলাচল করবেন। তিনি আরও জানান ইতিমধ্যে শুক্রবার থেকে অস্ট্রিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় ঘোষণা করেছে যে পুলিশ আবার করোনার বিধিনিষেধ মেনে চেক করবে। পুনরায় সম্ভাব্য ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলে স্বেচ্ছাসেবী স্ক্রিনিং পরীক্ষা সোমবার থেকে শুরু করা হবে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১১৫ জন তবে কেহ মৃত্যু বরণ করেন নি। এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৮,১৬৫ জন এবং মৃত্যু বরণ করেছেন ৭০৫ জন। করোনায় সুস্থতা লাভ করেছেন ১৬,৬০৭ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৮৫৩ জন। আইসিইউতে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন ৮ জন এবং হাসপাতালে চিকিত্সাধীন অবস্থায় আছেন ৬৮ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 6,442 total views,  1 views today