বাংলাদেশীদের জন্য ইতালিতে প্রবেশে নিষেধ-ইতালির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সালভিনি

 অন লাইন ডেস্ক থেকে, কবির আহমেদঃ ইতালি বলছে বাংলাদেশী অভিবাসীরা করোনার জাল সার্টিফিকেট নিয়ে ইতালিতে ফেরত এসেছে ! পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশীদের জন্য ইতালিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ইতালির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সালভিনি! বুধবার রোমের বহুল প্রচারিত দৈনিক পত্রিকা ‘ইল মেসাজেগেরো’ তার প্রথম পাতায় খবর ছাপিয়েছে যে বাংলাদেশের অভিবাসীরা করোনার নকল বা মিথ্যা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে ইতালিতে আগমন করেছেন। তাদেরকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হলেও অভিযোগ উঠেছে তা অনেকেই পালন করেন নি।                     

ইতালির রাজধানী রোমের তিনটি রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ ফেরত কর্মীর করোনা পজিটিভ হওয়ায় রোম প্রশাসন দুই সপ্তাহের জন্য উপরোক্ত রেস্টুরেন্ট গুলিকে বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছেন যে, ঢাকা থেকে কয়েকটি ফ্লাইটে প্রায় ৬০০ বাংলাদেশী ইতালিতে ফেরত এসেছেন যাদের অধিকাংশই করোনা ভাইরাসের কভিট-১৯ এ সংক্রমিত বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতালির পুলিশ তাদেরকে খুজে খুজে বের করে বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে পাঠাচ্ছেন।               

এরই মাঝে বুধবার ৮ জুলাই ইতালির সময় দুপুর ১২ টার দিকে কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইট QR 131 রোমে অবতরণ করলে বাংলাদেশ থেকে ফেরত ১২৫ জন প্রবাসীকে ইতালির ইমিগ্রেশন পুলিশ আটকে দেন। অবশ্য পরে বাংলাদেশ থেকে আগত ১২৫ জন যাত্রীর মধ্যে ইতালিয়ান পাসপোর্টধারী ১৩ জন যাত্রীকে রেখে বাকী ১১১ জন যাত্রীকে কাতার এয়ারলাইন্সে বিকাল ৪ টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ফেরত পাঠানো হয়েছে । এদের মধ্যে একজন অসুস্থ বাংলাদেশী নারী ছিলেন যাকে ইতালি সরকার মানবিক কারণে ইতালিতে প্রবেশের অনুমতি দেন। বিমানবন্দরে তাদের করোনার নমুনা পরীক্ষা শেষে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.