করোনার সংক্রমণ অব্যাহত বৃদ্ধি পাওয়ায় ভিয়েনার গণপরিবহনে মাস্ক কন্ট্রোল জোরদার করা হয়েছে!

ভিয়েনা থেকে, আনিসুজ্জামানঃ অস্ট্রিয়ায় করোনার দ্বিতীয় প্রাদুর্ভাব খুব দ্রুত বিস্তার লাভ করছে। ভিয়েনার গণপরিবহন সংস্থার জনৈক মুখপাত্র বলেন,করোনার নতুন সংক্রমণ অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা সবাই খুবই উদ্বিগ্ন। গণপরিবহন ও স্টেশনে সবাই যেন মাস্ক পড়ে তা নিশ্চিত করার জন্য কর্তৃপক্ষ ৩০০ জন সিকিউরিটি গার্ডকে মাস্ক কন্ট্রোলের জন্য অতিরিক্ত দায়িত্ব দিয়েছেন।                  

 তিনি বলেন আমরা গত কয়েকদিনে ভিয়েনার গণপরিবহনে প্রায় ১,২০০ মানুষকে পেয়েছি মাস্ক বিহিন অবস্থায়। সকলকে বুঝিয়ে মাস্ক পড়তে বাধ্য করা হয়েছে এবং যাদের ছিল না তাদেরকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান এখন থেকে কেহ মাস্ক ব্যতীত ভিয়েনার গণপরিবহনে ভ্রমণ করলে আমাদের সিকিউরিটির লোকজন তা ধরতে পারলে €৫০ ইউরো জরিমানা করা হবে। কেহ এই জরিমানা দিতে অস্বীকার করলে বা অন্য কোন সমস্যার সৃস্টি করলে পুলিশ কল করে আইনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।                                         

গতকাল ভিয়েনার পাশ্ববর্তী প্রদেশ Niederösterreich এর Horn জেলার একটি বৃহৎ কসাইখানার ২৯ জন কর্মচারীর করোনা সনাক্ত হওয়ার পর সেটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখানে পশু জবাই,কাটা ও বাজারজাত করার জন্য প্যাকেট করা হতো। স্থানীয় স্বাস্থ্য প্রশাসন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা ও কর্মচারী সহ সর্বমোট ২৪০ জনকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ প্রদান করেছেন।                         

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় অস্ট্রিয়ায় নতুন করে ১১৬ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন এবং ১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এই পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৯,২৭০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭১১ জন। করোনার থেকে সুস্থতা লাভ করেছেন ১৭,২৪৪ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৩১৫ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১১ জন,হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৭৯ জন এবং বাকীরা নিজ নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।

 6,769 total views,  1 views today