অস্ট্রিয়ায় স্কুলে প্রতি ৩ সপ্তাহ পর পর শিক্ষার্থীদের করোনা টেস্ট করা হবে

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ার শিক্ষামন্ত্রী হাইঞ্জ ফ্যাসম্যান জানিয়েছেন, করোনার ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধির ফলে সেপ্টেম্বর মাসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর শিক্ষামন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে প্রতি ৩ সপ্তাহ পর পর স্কুলে শিক্ষার্থীদের করোনার টেস্ট করা হবে।

এদিকে আজ ভিয়েনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার জানান যে অস্ট্রিয়ায় স্কুল খোলার পর থেকে অস্ট্রিয়ায় স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের অধীনে সমগ্র দেশে করোনার ট্র্যাফিক লাইট সিস্টেম প্রবর্তন শুরু করা হবে। অর্থাৎ করোনার সংক্রমণের ব্যাপকতা অনুযায়ী বিভিন্ন জেলা বা এলাকাকে লাল,কমলা,হলুদ এবং সবুজ রঙে চিন্হিত করা এবং সে অনুযায়ী দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বৃটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন যে,আগামী সোমবার থেকে অস্ট্রিয়া থেকে কেহ বৃটেনে প্রবেশ করলে তাকে ১৪ দিনের কোয়ারান্টাইনে থাকতে হবে। বুধবার নরওয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও অস্ট্রিয়া থেকে আগতদের জন্য ১০ দিনের কোয়ারান্টাইন ঘোষণা করে। ইতিপূর্বে ফিনল্যান্ড ও তিউনিসিয়াও অস্ট্রিয়া থেকে আগতদের জন্য বাধ্যতামূলক কোয়ারান্টাইন ঘোষণা দিয়েছেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩৩১ জন। যার মধ্যে রাজধানী ভিয়েনাতেই ১৭২ জন। ভিয়েনায় বর্তমানে করোনা আক্রান্ত সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৩০৭ জন। আজ করোনায় ১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৪,৭৬২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৩০ জন। করোনা থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ২১,২৬০ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২,৭৭২ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন ২২ জন এবং হাসপাতালের করোনা ইউনিটে রয়েছেন ১১২ জন। তাছাড়া করোনা আক্রান্ত অধিকাংশ মানুষকেই নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

 7,158 total views,  1 views today