অস্ট্রিয়ায় করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধিতে উদ্বিগ্ন সরকার !

করোনা কমিশনের সাথে কথা বলতে চান সেবাস্তিয়ান কুর্জ !

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ অস্ট্রিয়ায় ক্রমবর্ধমান করোনার নতুন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তার অফিসের এক কর্মচারীর করোনার সংক্রমণ সনাক্ত হওয়ায় তিনি এতোদিন হোম অফিস করছেন। গত বৃহস্পতিবার অস্ট্রিয়ার নতুন করোনা কমিশনের বৈঠকে তেমন কোন ফলপ্রসূ সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যায় নি।

বৃহস্পতিবার করোনার বৈঠকের সময় সংক্রমণের ব্যাপকতা অনুযায়ী বিভিন্ন রাজ্য,জিলা বা এলাকাকে বিভিন্ন রঙ্গে চিন্হিত করার ব্যাপারে আলোচনা হয়। সভায় কয়েকজন প্রতিনিধি ভিয়েনা রাজ্যকে হলুদ জোন থেকে কমলা জোনে পরিবর্তিত করার পরামর্শ দেন। কিন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার বলেন, ভিয়েনা এখনও কমলা জোনে পড়ে নি তাই রাজধানী ভিয়েনা রাজ্য এখনও হলুদ রঙের জোনেই থাকছে।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানান সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জ পরবর্তী সভায় নিজেই উপস্থিত থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। অনেক বিশ্লেষকরা মনে করছেন চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ (ÖVP) ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার (Grüne) করোনার বিধিনিষেধ ও সিদ্ধান্তের ব্যপারে কিছুটা মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। অনেকেই মনে করছেন চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ পূনরায় সর্বত্র মাস্ক পড়ার কঠোর বাধ্যতামূলক করার পক্ষে মত দিয়েছেন। কিন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রী এখনও অতোটা কঠোরতার পক্ষে নন।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩০০ জন মানুষ। যার মধ্যে রাজধানী ভিয়েনাতেই ১৪১ জন এবং দুই জন করোনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। ভিয়েনায় বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৪১৯ জন।

এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৫,০৬২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৩২ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ২১,৪০৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২,৯২৪ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইউতে আছেন ২২ জন এবং বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১১৬ জন। তবে সিংহভাগ মানুষকে নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। যদি কেহ করোনার উপসর্গ অনুভব করেন বা সন্দেহ হলে ভয় না পেয়ে করোনার হট লাইন 1450 এ ফোন করলে তারা আপনাকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিবেন অথবা আপনার বাসায় এসে পরীক্ষা করবে।

 

 7,379 total views,  1 views today