অস্ট্রিয়ায় করোনার নতুন প্রাদুর্ভাবে কোন কঠোর সিদ্ধান্ত নেয় নি মন্ত্রিপরিষদ !

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ আজ অস্ট্রিয়ায় সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জের সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের করোনা সম্পর্কিত এক বিশেষ বৈঠকে কোনও রকম নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয় নি। বৈঠক শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সেবাস্তিয়ান কুর্জ এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে সকলকে নিজের থেকে সতর্কতার সাথে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ করেছেন। তিনি এই বৎসর অস্ট্রিয়ায় বড়দিন উদযাপন স্বল্প পরিসরে পালনের পরিকল্পনা করার অনুরোধ করেছেন।

সরকারের উপ প্রধান ভ্যারনার কোগলার বলেন,আসন্ন শরৎ ও শীতের সময় সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা কিছুটা কঠিন বলে সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে। স্পোর্টস মিনিস্টারের দায়িত্বে থাকা কোগলার বলেন গত চ্যাম্পিয়নস লীগের ফাইনাল খেলার দিন অস্ট্রিয়ার Tirol রাজ্যে এক অডিটোরিয়ামে এক সাথে শতাধিক মানুষ এক সাথে খেলা দেখার পর সেখানে ১৯ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। সেদিন সেখানে যারা খেলা দেখেছেন সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তাই তিনি আশা করেন সবাই নিজের থেকে গণসমাবেশ এরিয়ে চলার পরামর্শ দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার বলেন,দুঃখজনক হলেও সত্য যে আজ আমাদের দেশে পুনরায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন তিনশতের উপরে। আমরা আশঙ্কা করছি আগামী অক্টোবর মাসে এই সংক্রমণ চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে। তবে আমাদের চিকিৎসাসেবা এবং আইসিইউ পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রস্তুত রাখা আছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার জোর দিয়ে বলেন,যে “আমাদের আবার আরও সচেতন হতে হবে”। তিনি আরও বলেন আমাদের সকলকে নিজের থেকেই সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে কেননা এটি খুবই ছোঁয়াচে ভাইরাস। তিনি অস্ট্রিয়ায় করোনার দ্রুত পরীক্ষার পদ্ধতির জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি জানান,অস্ট্রিয়ার বিভিন্ন সীমান্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় করোনার সংক্রমণ সনাক্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন অব্যাহত থাকবে।

আগামী সোমবার ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ভিয়েনা, Niederösterreich ও Burgenland রাজ্যে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হচ্ছে। বাকী রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে ১৪ সেপ্টেম্বর। শিক্ষামন্ত্রী হাইঞ্জ ফ্যাসম্যান আজ এক গ্রীষ্মকালীন বিশেষ স্কুল পরিদর্শনে এসে অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের শিশুদের সামান্যতম কোন শারীরিক অসুস্থতা যেমন জ্বর, হাচি-কাশি,গলাব্যাথা হলে স্কুলে না পাঠানোই ভালো বলে জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান এই বৎসর অস্ট্রিয়ায় ৩৭,০০০ হাজার শিশু তাদের নতুন স্কুল জীবন শুরু করবে।

অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জ প্রকৃতপক্ষে করোনার মহামারীটির বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন কিন্ত মন্ত্রিপরিষদ নতুন শিক্ষাবর্ষ সামনে রেখে কঠোরতা থেকে আপাতত সরে এসেছেন বলে এক রাজনৈতিক বিশ্লেষণে বলা হয়েছে।                                                           

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২৭ জন। এর মধ্যে রাজধানী ভিয়েনাতেই ১৪০ জন। তবে আজ কেহ মৃত্যুবরণ করেন নি। এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৭,৯৬৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৩৪ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ২৩,৮২০ জন। বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩,৪১৫ জন। আইসিইউতে আছেন ৩০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৫৭ জন। অবশিষ্টরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 7,520 total views,  1 views today