অস্ট্রিয়ায় করোনা পুনরায় সক্রিয় হয়ে উঠেছে !

সোমবার থেকে সমগ্র দেশে মাস্ক বাধ্যতামূলক – সেবাস্তিয়ান কুর্জ

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ আজ অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় করোনা কমিশন ও মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকের পর সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ উপরোক্ত মন্তব্য করেন। তিনি বলেন,”আমি জানি যে অনেকে এখনও করোনাকে বিশ্বাস করে না। তবে দুঃখজনক হলেও সত্য যে,করোনা আবার মারাত্মক হয়ে উঠছে” তিনি জানান আজও আমাদের দেশে নতুন করে ৫৮০ জন মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন এবং ফেডারেল রাজধানী ভিয়েনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২৬৫ জন। আপনারা যদি গত কয়েকদিনের পরিসংখ্যান দেখেন তাহলে সহজেই বুঝতে পারবেন যে,ভাইরাসটি পুনরায় পূর্বের মতোই সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তিনি জনগণকে সতর্ক করে বলেন, এখন থেকে আমাদের পুনরায় সতর্কাতা অবলম্বন করতে হবে নতূবা ভয়াবহ বিপদের সম্মুখীন হতে হবে।

সেবাস্তিয়ান কুর্জ জানান,ট্র্যাফিক লাইট কমিশনের সুপারিশের ভিত্তিতে আমরা করোনার সংক্রমণ বিস্তার রোধে পুনরায় কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামী সোমবার থেকে সমগ্র অস্ট্রিয়ায় নিম্নলিখিত বিধিনিষেধ সমূহ মেনে চলতে হবে।

*- বর্তমানে সংক্রমিত অঞ্চল সমূহে গণপরিবহন, সুপারমার্কেট ছাড়াও খুচরা, পরিষেবা এবং পার্টি ট্র্যাফিকের ক্ষেত্রে মুখ এবং নাকের সুরক্ষার জন্য মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। একইভাবে, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ক্লাশ রুমের বাহিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক (যেমনটি ভিয়েনায় ইতিমধ্যে কার্যকর)।

*- ইন্ডোর ইভেন্টে ৫০ জনের বেশী লোক হতে পারবে না যেমন বিভিন্ন উৎসব ধরা যাক, জন্মদিনের পার্টি। আর আউটডোরে ১০০ জনের বেশী লোকের সমাগম হতে পারবে না। বিভিন্ন পেশাদারী খেলার ইভেন্টে স্টেডিয়ামে ১,৫০০ থেকে সর্বোচ্চ ৩,০০০ লোকের উপর সমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

* – ক্যাটারিংয়ের ক্ষেত্রে ওয়েটারদের এখন থেকে পুনরায় মাস্ক পরতে হবে, রেস্টুরেন্ট,বার বা লোকালে বন্ধ কক্ষগুলিতে শুধুমাত্র সিট ব্যবহার করে পান করতে বা খাবার খেতে পারবে। এখন থেকে আর দাড়িয়ে পান করা যাবে না।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার জানান বর্তমানে সাতটি জেলাকে হলুদ জোন বা মাঝারি ধরনের বিপদজনক অঞ্চল ঘোষিত করা হয়েছে। জেলা সমূহ নিম্নে উল্লেখ কর হলো- Vienna, Graz, Innsbruck, Korneuburg, Wiener Neustadt এবং Tirol রাজ্যের দুই জেলা Kufstein ও Schwaz জেলা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান আপার অস্ট্রিয়ার রাজধানী Linz কে হলুদ জোন থেকে পূর্বের সবুজ জোনে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। একই সাথে মন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন,যে সবুজ জোন মানেই এই নয় যে সবকিছু পুনরায় পূর্বের মতোই ঠিকঠাক হয়ে গেছে।

আজকের প্রেস ব্রিফিংয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার বলেন,এখন আমাদের পুনরায় পূর্বের মতোই সতর্কতামূলক ভাবে চলাফেরা করতে হবে। তিনি সরকারকে আশ্বস্ত করে বলেন কোন বিধিনিষেধ আরোপ করা হলে পুলিশ তা বাস্তবায়নের পূর্ণ সহযোগিতা করবে।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় করোনায় ২ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩১,৮২৭ জন এবৃ মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৫০ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ২৬,২৫৭ জন। বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪,৮২০ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইতে আছেন ৪১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২০৪ জন। অন্যান্য রোগীরা নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 

 8,132 total views,  1 views today