অস্ট্রিয়ায় স্কুল খোলার পর গত ২ সপ্তাহে ৪৫৫ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৩,৬০০ কোয়ারেন্টাইনে – শিক্ষামন্ত্রণালয়

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর বিকালে অস্ট্রিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে,গত ২ সপ্তাহ পূর্বে অস্ট্রিয়ার পূর্বাঞ্চলের ৩ রাজ্য এবং ১ সপ্তাহ যাবৎ অবশিষ্ট রাজ্য সমূহে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান খোলার পর থেকে এই পর্যন্ত ৪৫৫ জন করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত হয়েছেন। এর মধ্যে ৩৭২ জন শিক্ষার্থী, ৫৮ জন শিক্ষক এবং ২৫ জন প্রশাসনিক কর্মকর্তা। এছাড়াও প্রায় ৩,৬০০ জনকে সন্দেহজনক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এই সংক্রমণের মধ্যে রাজধানী ভিয়েনাতেই অর্ধেক। ভিয়েনার বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে গত ২ সপ্তাহে ১৯৮ জন শিক্ষার্থী,১৫ জন শিক্ষক এবং ১ জন প্রশাসনিক কর্মচারীর করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে। এরপরের স্থানে যথাক্রমে Oberösterreich এ ৫০ জন শিক্ষার্থী,১০ জন শিক্ষক এবং ৩ জন প্রশাসনিক কর্মচারী,NÖ রাজ্যে ৪১/৭/৩ জন, Tirol রাজ্যে (৩০/৩/০), Voralberg রাজ্যে(২৬/৬/০), Salzburg রাজ্যে (১৩/৬/১), Steiermark রাজ্যে (১০/৩০/০),Burgenland রাজ্যে (১০/৪/০), Kärnten একমাত্র ফেডারেল রাজ্য যেখানে এখনও কোন শিক্ষার্থী সংক্রমিত হ্য় নি। তবে এই রাজ্যে ৭ জন শিক্ষক করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

রাজধানী ভিয়েনায় খুব কমই এমন কোনও স্কুল রয়েছে যেটিতে স্কুলের প্রথম দুই সপ্তাহে সন্দেহভাজন কোভিড- ১৯ সংক্রমণের মুখোমুখি হয়নি। গত কয়েক দিনে,অভিভাবক এবং শিক্ষকদের পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রী হেইঞ্জ ফ্যাসম্যানও শিক্ষামন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত এই মোবাইল টিমের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। শিক্ষামন্ত্রী বরাবরই বলে আসছিলেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করোনা থেকে নিরাপদ আছে। আজকের এই রিপোর্টের পর ধারণা করা হচ্ছে আগামী সপ্তাহে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে নতুন কিছু একটা আইন করতে পারেন। সংবাদ সংস্থা এপিএ শিক্ষামন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান,আগামী সপ্তাহে স্কুলে আরও বেশী ও দ্রুত পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.